ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়ান বাহিনীর প্রশিক্ষণের যুদ্ধের দৃশ্য দাবি করে বিভ্রান্তিকর পোস্ট ভাইরাল 

International Missing Context

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ভিডিও শেয়ার করে সেটিকে রাশিয়া ইউক্রেনের চলমান যুদ্ধের দৃশ্য দাবি করা হচ্ছে। ৪ মিনিট ১৩ সেকেন্ডের এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, সামরিক বাহিনী গুলি ছুড়ছে, ট্যাঙ্ক থেকে ছুটছে মিসাইল ও বম্ব এবং বিভিন্ন ধরনের আগ্নেয়াস্ত্রের নিক্ষেপন চলছে। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধ 🥺😥😥।”  

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়া ও বেলারুশের যৌথ উদ্যোগে যুদ্ধ প্রশিক্ষণের ভিডিওকে ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের দৃশ্য দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্ট 

উল্লেক্ষ্য, ২৪ ফেব্রুয়ারি তারিখে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন প্রকাশ্যে ইউক্রেনে হামলার নির্দেশ দেন। প্রথমে ইউক্রেনের শহরের বিমানবন্দর ও সামরিক সদর দফতগুলিতে আক্রমণ করা হয়। এরপর পরে রাশিয়ার পার্শ্ববর্তী মিত্র দেশ বেলারুস থেকে উত্তর, পূর্ব ও দক্ষিন থেকে ট্যাঙ্ক সহ সৈন্যরা ইউক্রেনে প্রবেশ করে। বিগত ৪৮ ঘণ্টায় ৫০,০০০ হাজার ইউক্রেনবাসী দেশ ছেড়েছেন

তথ্য যাচাই 

এই দাবির সত্যতা যাচায় করতে আমরা ভিডিওটিকে ইনভিড টুলের মাধ্যমে কয়েকটি কি-ফ্রেমে ভেঙ্গে গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা ‘এ পি নিউজ’-এর ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, তারিখের প্রতিবেদনে এই ভিডিওর একটি দৃশ্য দেখতে পাই। প্রতিবেদন অনুযায়ী বেলারুশের ব্রেস্টস্কাই ফাইরিং রেঞ্জ এলাকায় রাশিয়া ও বেলারুশের যৌথ উদ্যোগে যুদ্ধ প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়। আয়োজিত এই প্রশিক্ষন কেন্দ্রে মোটর চালিত রাইফেল, আর্টিলারি, আন্টি ট্যাঙ্ক মিসাইল ইউনিট সহ সাঁজোয়া সৈন্য বাহক ক্রুরা নিয়ে আসা হয়। ইউক্রেনে হামলার জন্য রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট রাশিয়ার প্রায় ৭০ শতাংশ সামরিক বাহিনি সেখানে একত্রিত করে। 

প্রতিবেদন আর্কাইভ 

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘রয়টার্স’-এর ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, তারিখের প্রতিবেদন অনুযায়ী, এই প্রশিক্ষণে ঠাণ্ডা যুদ্ধের পর বেলারুশে সব থেকে বেশি রাশিয়ান সৈন্য মোতায়েন করা হতে পারে। ২০ ফেব্রুয়ারি তারিখ অবধি ওই এলাকায় প্রায় ৩০,০০০ সৈন্যের পাশাপাশি ফাইটার জেট সহ বিভিন্ন ক্ষেপণাস্ত্র থাকবে বলে আশঙ্কা করা হয়েছে। ইউক্রেন দেশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ইউক্রেন-রাশিয়া সীমান্তে প্রায় ১,১৫,০০০ জন রাশিয়ান সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। 

প্রতিবেদন আর্কাইভ 

সংবাদমাধ্যম কলম্বিয়ানইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদন থেকেও একই খবর জানা যায়। 

এই সুত্র ধরে ইউটিউবে প্রাসঙ্গিক কিওয়ার্ড সার্চ করি। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘দি সান’-এর ইউটিউব চ্যানেলে ভাইরাল এই ভিডিওর দীর্ঘ সংস্করণ খুঁজে পাই। ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২২ তারিখে আপলোড করা এই ভিডিওর শিরোনামে লেখা রয়েছে, “ইউক্রেন সীমান্তে ক্ষেপণাস্ত্র মহড়া চালাচ্ছে রুশ ও বেলারুশিয়ান সামরিক বাহিনী।” 

এখান থেকে আরও স্পষ্ট হয়ে যাই ভাইরাল এই ভিডিও রাসিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের দৃশ্য নয়। এই ঘটনা কেন্দ্রিক ‘আল জাজিরা’র একটি ভিডিও উপস্থাপনা নীচে দেওয়া হল। 

উপরোক্ত প্রমাণ ও তথ্যের সাপেক্ষে স্পষ্ট হয়ে রাশিয়া এবং বেলারুশিয়ান সামরিম বাহিনীর প্রশিক্ষণের ভিডিওকে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ বলে বিভ্রান্তিকর দাবি করা হচ্ছে। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়া ও বেলারুশের যৌথ উদ্যোগে যুদ্ধ প্রশিক্ষণের ভিডিওকে ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের দৃশ্য দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়ান বাহিনীর প্রশিক্ষণের যুদ্ধের দৃশ্য দাবি করে বিভ্রান্তিকর পোস্ট ভাইরাল

Fact Check By: Nasim A 

Result: Missing Context


Leave a Reply

Your email address will not be published.