অবৈধ অভিবাসীদের পরিত্যাক্ত ব্যাগের প্রদর্শনীর ছবিকে মৃত অভিবাসীদের ব্যাগ দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

False International

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ছবি শেয়ার দাবি করা হচ্ছে, এগুলো সমুদ্রপথে অবৈধভাবে ইউরোপে প্রবেশেকারী মৃত অভিবাসীদের ব্যাগ। পোস্টের ছবিতে দেখা যাচ্ছে, একটি দেওয়ালে অনেকগুলো ব্যাগপ্যাক অগোছালোভাবে রাখা রয়েছে ও হ্যাঙ্গারে কয়েকটি জ্যাকেট জাতীয় কাপড় ঝোলানো রয়েছে। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “অবৈধপথে ইউরোপ পাড়ি দিতে গিয়ে সমুদ্রে মারা যাওয়া অভিবাসীদের ব্যাগ সংগ্রহ করে ইতালির ল্যাম্পেডুসা দ্বীপে ইতালিয়ান মিউজিয়ামের ভিতরে রাখা হয়েছে। এখানে অনেক হতভাগা বাংলাদেশীও ছিলেন।।” 

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের মাধ্যমে করা দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। নিউ ইয়র্কের ‘পার্সন স্কুল অফ ডিজাইন’-এ প্রদর্শিত অবৈধ অভিবাসীদের পরিত্যাক্ত ব্যাগের প্রদর্শনীর ছবিকে ভুয়ো দাবির সাথে ভাইরাল করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্ট আর্কাইভ 

তথ্য যাচাই

এই দাবির সত্যতা যাচাই করতে ছবিটিকে গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে, স্প্যানিশ আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা ‘ইএফই (EFE)’-এর ২২ মার্চ, ২০১৭, তারিখের প্রতিবেদনে এই জাতীয় ছবির অনুসন্ধান পাই। জানতে পারি, মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃতত্ত্ববিদ জেসন ডি লিওন অভিবাসীদের সম্পর্কে বৈজ্ঞানিক তথ্য বের করার উদ্দেশ্যে একটি গবেষণা করেন। এই প্রকল্পের নাম দেওয়া হয় ‘স্টেট অফ এক্সসেপশন (State of Exception)’। তিনি ২০০৯ সাল থেকে বস্তু সংগ্রহ করেন এবং প্রায় ১,০০০ লোকের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন বিশেষ করে যারা মেক্সিকো এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সীমান্ত অঞ্চল অতিক্রম করেছে বা যারা ওই এলাকায় কাজ করেন। যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছানোর চেষ্টা করেছে সোনোরান মরুভূমি অতিক্রমকারী বেশ কিছু অভিবাসীর দ্বারা পরিত্যক্ত ব্যাগসমূহের নিয়ে একটি ‘ব্যাকপ্যাকের প্রাচীর’ প্রদর্শন করা হয়। 

প্রতিবেদন আর্কাইভ 

ফিলাডেলফিয়া ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ‘আল দিয়া’-এর ২৩ মার্চ, ২০১৭, তারিখের প্রতিবেদন থেকেও একই কথা জানতে পারি। (আর্কাইভ)  

এই সুত্র ধরে গুগলে ‘State of Exception’ সার্চ করি। ফলাফলে মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে পোস্টের এই ছবি খুঁজে পাই। জানতে পারি, অ্যারিজোনা মরুভূমি অতিক্রমকারী অভিবাসীদের ফেলে যাওয়া শত শত ব্যাকপ্যাক গোছাতে ও প্রদর্শনীতে সাহায্য করেছিল ফটোগ্রাফার রিচার্ড বার্নস এবং কিউরেটর আমান্ডা ক্রুগলিয়াক।  

ওয়েবসাইট আর্কাইভ 

মিশিগান হিউমানিটিস নামের ইউটিউব চ্যানেলে এই প্রদর্শনের একটি ভিডিও পাওয়া যায়। নিউ ইয়র্কের ‘পার্সন স্কুল অফ ডিজাইন’-এ প্রদর্শিত অবৈধ অভিবাসীদের পরিত্যাক্ত ব্যাগের প্রদর্শনীর ছবিকে ভুয়ো দাবির সাথে ভাইরাল করা হচ্ছে। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। নিউ ইয়র্কের ‘পার্সন স্কুল অফ ডিজাইন’-এ প্রদর্শিত অবৈধ অভিবাসীদের পরিত্যাক্ত ব্যাগের প্রদর্শনীর ছবিকে ভুয়ো দাবির সাথে ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:অবৈধ অভিবাসীদের পরিত্যাক্ত ব্যাগের প্রদর্শনীর ছবিকে মৃত অভিবাসীদের ব্যাগ দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Fact Check By: Nasim A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.