পুরনো ও অপ্রাসঙ্গিক ঘূর্ণিঝড়ের কোলাজ ভিডিও ঘূর্ণিঝড় বিপর্যয়ের দৃশ্য দাবিতে ভাইরাল

False Social

চলতি মাসের ১৬ তারিখে ঘূর্ণিঝড় বিপর্যয় গুজরাটের কচ্ছ জেলার নালিয়া শহরে আছড়ে পড়ে, যা সারা রাজ্য জুড়ে এক ভয়ঙ্কর প্রভাব ফেলেছে। এই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে ২৩ জনের লোকের মৃত্যু ৪৭ জনেরও বেশি লোক আহত, ৪৬০০ গ্রাম প্রভাবিত হয়েছে। এই ঘূর্ণিঝড় রাজস্থানের কিছু জায়গায় বন্যার পরিস্থিতিও তৈরি করেছে। অতি তীব্র ’ঘূর্ণিঝড় বিপর্যয়’ (সরাসরি দেখুন) হচ্ছে আরব মহাসাগরে সৃষ্ট একটি গ্রীষ্মমণ্ডলীয় ঘূর্ণিঝড়। এই প্রসঙ্গে তিনটি ভিডিওর একটি কোলাজ শেয়ার করে সেটিকে ঘূর্ণিঝড় বিপর্যয়ের দৃশ্য বলে দাবি করা হচ্ছে। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, “145 কিলোমিটার বেগে গুজরাটের কচ্ছ উপকূলে আছড়ে পড়লো মহা শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় বিপর্যয়। চলছে প্রকৃতির তাণ্ডবলীলা। #_গত_দুই_দিন_আগের_ভিডিও__ #_হে_আমার_রব_গুজরটের_সকল_ #__মানুস_কে_আপনি_হেফাজত_করুন_🙏।“  

তথ্য যাচাই করে আমরা দেখতে পেয়েছি পোস্টের দাবিটি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। পুরনো ও অপ্রাসঙ্গিক ঘূর্ণিঝড়ের কোলাজ ভিডিওকে ঘূর্ণিঝড় বিপর্যয়ের দৃশ্য দাবিতে শেয়ার করা হচ্ছে। 

আর্কাইভ 

তথ্য যাচাইঃ 

প্রথম ভিডিও( ০.০০- ০.১৪ মিনিট):   

ভাইরাল ভিডিওর সত্যতা যাচাই করতে ভিডিওটিকে কি ফ্রেমে ভাগ করে গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করতেই ভিডিওর আসল উৎস পেয়ে যায়। হুবহু এই ভিডিওটি আবহাওয়া কেন্দ্রিক সংবাদমাধ্যমের ফেসবুক পেজ-’Weather Center’ থেকে ২০১৯ সালের ২৬ জুন তারিখে পোস্ট করা মিলে। ভিডিওটি শেয়ার করে ক্যাপশনের মাধ্যমে এটিকে টেক্সাসের মন্টে অল্টো শহরে তীব্র ঘূর্ণিঝড়ের বলে জানিয়েছেন। 

এই একই ভিডিওটি একই তথ্য সহ Van Sly নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলেও পাওয়া যায়। এখানেও ভিডিওটি ২০১৯ সালের ২৬ জুন তারিখে আপলোড করা হয়েছে। 

WDRB-এর ২৭ জুন,২০১৯, তারিখের প্রতিবেদনেও ভিডিওটিকে টেক্সাসের মন্টে অল্টো শহরের বলে জানানো হয়েছে। সামান্থা মার্টিনেজ তীব্র ঘূর্ণিঝড়ের এই দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করেছিলেন।    

তৃতীয় ভিডিও(০.৩৬ – ১.২০ মিনিট): 

এই অংশটুকু ’Indonesia Weather & Disaster’ নামের এক টুইটার প্রোফাইল থেকে ১৪ জানুয়ারি,২০২৩, তারিখে টুইট করে এটিকে ইন্দোনেশিয়ার সুমেদাং এলাকায় টর্নেডোর দৃশ্য বলে জানানো হয়েছে।  

তথ্যের ভিত্তিতে প্রমানিত হয় যে, ভাইরাল ফেসবুক পোস্টের ভিডিওটি পুরনো ও অপ্রাসঙ্গিক ভিডিওর কোলাজ যা ঘূর্ণিঝড় বিপর্যয়ের সাথে সম্পর্কিত নয়। 

আমরা স্বাধীনভাবে দ্বিতীয় ভিডিওটির সত্যতা যাচাই করতে পারিনি। পরবর্তীতে ভিডিওটি সম্পর্কিত কোন তথ্য পাওয়া গেলে এই প্রতিবেদনটি আপডেট করা হবে। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেণ্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুয়ো। পুরনো ও অপ্রাসঙ্গিক ঘূর্ণিঝড়ের কোলাজ ভিডিওকে ঘূর্ণিঝড় বিপর্যয়ের দৃশ্য দাবিতে শেয়ার করা হচ্ছে।

Avatar

Title:পুরনো ও অপ্রাসঙ্গিক ঘূর্ণিঝড়ের কোলাজ ভিডিও ঘূর্ণিঝড় বিপর্যয়ের দৃশ্য দাবিতে ভাইরাল

Written By: Nasim Akhtar 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *