মমতার পুরনো একটি ছবিকে নন্দিগ্রামের ঘটনার সাথে যুক্ত করে বিভ্রান্তিকর দাবি করা হচ্ছে

Missing Context Political

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পুরনো ছবিকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে শেয়ার করা হচ্ছে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি পায়ে ক্রেপ ব্যান্ডেজ বেধে হাওয়ায় চপ্পল পরে দাড়িয়ে আছেন। এই ছবিটিকে সম্প্রতির নন্দিগ্রামের ঘটনার দাবি করা হচ্ছে। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “জেড প্লাস সিকিউরিটি, সেপাই, সান্ত্রী,আমলা, চাটুকার, মোসাহেব, সিন্ডিকেট দালাল,বাটপার.. এতজনের মাঝে বিরোধীরা ধাক্কা দিয়ে চলে গেলো? লোকের আর কাজ নেই! কি চিত্রনাট্য মাইরি! মে মাসের পর দিদিকে টলিউডে চিত্রনাট্য লেখার কাজে লাগানো হবে। এবার থেকে আর সাউথের ছবি নকল করা বন্ধ। আর ১০ই মে তারিখটাকে “আন্তর্জাতিক মেলোড্রামা দিবস” পালন করা হবে।“

তথ্য যাচাই করে দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভুয়ো এবং বিভ্রান্তিকর। মমতা ব্যানার্জির পুরনো একটি ছবিকে অপ্রাসঙ্গিক দাবির সাথে শেয়ার করা হচ্ছে। 

Mamata z+.png
ফেসবুকআর্কাইভ

উল্লেখ্য, গত ১০ মার্চ নন্দীগ্রামে নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে আহত হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। তার পায়ের চোট লাগে, তাকে এসএসকেএম হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়। 

তথ্য যাচাই

এই ছবির সত্যতা যাচাই করতে প্রথমে গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে দেখতে পাই, ২০২০ সালের ১৭ নভেম্বর এই ছবিটিকে টুইটারে শেয়ার করা হয়েছিল। টুইটের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “এই বয়সেও হাড় ভাঙা পরিশ্রম করছেন একজন  মহিলা শুধু মাত্র প্ৰচার পাওয়ার জন্যে!!! কিন্তু নিন্দুকেরা বলবে #জল_কাদা  নেই তবুও কাপড় টা একটু তুলে ধরেছেন #ব্যান্ডেজ টা দেখানোর জন্যে!!Pouting facePouting face #Copied”। 

আর্কাইভ

এরপর এই ক্যাপশন থেকে কিছু শব্দ নিয়ে কিওয়ার্ড সার্চ করে “All India Trinamool Congress – AITC Supporters” নামে একটি ফেসবুক পেজে এই ছবিকে দেখতে পাই। ২০২০ সালের ১৬ নভেম্বর এই ছবিকে পোস্ট করা হয়েছিল। এই পোস্টে বলা হয়, অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের প্রয়ানের শেষ যাত্রায় পায়ে ব্যান্ডেজ বেধে হাটলেন মমতা। 

Mamata SoUmitra.png
ফেসবুক আর্কাইভ

এরপর সংবাদমাধ্যম ‘এই সময়’-এর একটি প্রতিবেদনে এই ঘটনার অন্য একটি দিকে থেকে তোলা এই একই ছবি দেখতে পাই। ২০২০ সালের ১৬ নভেম্বরের এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে 

mamata walk.png
প্রতিবেদন আর্কাইভ 

অর্থাৎ, স্পষ্ট হয়ে যায় এটি ১০ মার্চের ঘটনার ছবি নয়। অন্যদিকে মমতা হাসাপাতালে থাকাকালীন তার পায়ে প্লাস্টার লাগানো অবস্থার একটি ভিডিও “বাংলার গর্ব মমতা” পেজ থেমে শেয়ার করা হয়। এই ভিডিওতে দেখা যায় মুখ্যমন্ত্রী হাসাপাতালের বেডে শুয়ে রয়েছেন এবং তার সমর্থকদের বার্তা দিচ্ছেন।  

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি অপ্রাসঙ্গিক। মমতা ব্যানার্জির পুরনো একটি ছবিকে অপ্রাসঙ্গিক দাবির সাথে শেয়ার করা হচ্ছে।

Avatar

Title:মমতার পুরনো একটি ছবিকে নন্দিগ্রামের ঘটনার সাথে যুক্ত করে বিভ্রান্তিকর দাবি করা হচ্ছে

Fact Check By: Rahul A 

Result: Missing Context


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *