কেরালায় জিও বা অন্য কোনও টেলিকম সার্ভিস ব্যান করা হয়নিঃ আইটি প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি

False Political

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি গ্রাফিক্স শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, কেরালায় জিও পরিষেবা বন্ধ করল পিন্নারাই বিজয়নের সরকার। পোস্টের ছবিতে দেখা যাচ্ছে কেরালার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিন্নারাই বিজয়নের ছবি দেওয়া রয়েছে। তার নিচে লেখা রয়েছে, “মোদী আর আম্বানিকে কেরলের মুখ্যমন্ত্রী দ্বারা উচিত শিক্ষা, নতুন সালের শুরু থেকেই সমস্ত কেরালা জুড়ে জিও নেটওয়ার্ককে বন্ধ করে দেওয়া হবে, এবং চালু করা হবে সরকারের নিজস্ব নেটওয়ার্ক, কেরালা ফাইবার নেট। সেটা আবার জিওর অর্ধেক দামে। মুখ্যমন্ত্রী হলে এমনি হতে পারে, যে প্রধানমন্ত্রীর নাকে ডগায় দাড়িয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চ্যালেঞ্জ জানাবে।“ 

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “বামপন্থী পারে কম দামে নেটওয়ার্ক পরিষেবা দিতে। পুরো রাজ্যের মানুষ কে ফ্রি ভেকশিন দিতে। বিদ্যুৎ বিল ফ্রি করে দিতে। এই মাসে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগ করতে পারে। পানীয় জল ফ্রি দিবে। সমস্ত ভুমি হীন পরিবার কে চাষ যোগ্য42 ডিসমিল জমি কিনে দেবে।“

তথ্য যাচাই করে আমরা দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভুয়ো এবং ভিত্তিহীন। কেরালা তথ্য প্রযুক্তি বিভাগে প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি জানিয়েছেন, সরকার জিও বা অন্য কোনও টেলিকম সার্ভিস বন্ধ করেনি। 

download (97).png
ফেসবুক পোস্টআর্কাইভ

তথ্য যাচাই

এই দাবির সত্যতা যাচাই করতে প্রথমে গুগলে কিওয়ার্ড সার্চ করি। সংবাদ মাধ্যম ‘ফাইনান্সিয়াল এক্সপ্রেস’র ফেব্রুয়ারি মাসের একটি প্রতিবেদন থেকে জানতে পারি, কেরালা রাজ্য তথ্য প্রযুক্তি ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড, কেরালা রাজ্য বিদ্যুৎ বোর্ড এবং রাজ্য যৌথ উদ্যোগে রাজ্যের ১৪টি জেলায় মোট ৩৫ হাজার কিমি লম্বা অপটিক ফাইবার নেটওয়ার্ক বসানো হচ্ছে। এর ফলে দরিদ্র সীমার নিচে থাকা ২০ লক্ষ পরিবার বিন্যামূল্যে ইন্টারনেট পরিষেবা পাবে। ফেব্রুয়ারি মাসে এই প্রকল্পের প্রথম ধাপ শুরু হয়ে গিয়েছে। প্রথম আট হাজার সরকারি অফিস এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই পরিষেবা দেওয়া হবে। কেরালা সরকার ভারত ইলেকট্রনিক্স লিমিটেড-কে এই প্রকল্পের দায়িত্ব দিয়েছে। 

download (98).png
প্রতিবেদন আর্কাইভ

এরপর ‘ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো বাংলা’ কেরালার আইটি বিভাগে প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি ‘বিশ্বনাথ সিনহা’র সাথে যোগাযোগ করে। তিনি আমাদের জানান, “সোশ্যাল মিডিয়ায় যে দাবিটি করা হছে সেটি একেবারেই ভুয়ো। কেরালা সরকার কোনদিনই কোনও টেলিকম সার্ভিস বা কোনও ইন্টারনেট সার্ভিস ব্যান করেনি।“ তার কাছে বিষদে জানতে চাওয়ার তিনি আরও বলেন, “রাজ্য সরকারের কাছে কোনও টেলিকম সার্ভিস বন্ধ করার ক্ষমতা থাকে না। শুধুমাত্র কেন্দ্রই তা করতে পারে যথাযথ কারণ দেখিয়ে।

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল। কেরালা সরকার জিও বা অন্য কোনও টেলিকম সার্ভিস বন্ধ করেনি। কেরালায় ফাইবার অপটিক নেটওয়ার্ক বসানো হচ্ছে কিন্তু তার সাথে জিও ব্যান করার কোনও সম্পর্ক নেই।

Avatar

Title:কেরালায় জিও বা অন্য কোনও টেলিকম সার্ভিস ব্যান করা হয়নিঃ আইটি প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *