সন্ত্রাসী মাসুদ আজহারের মৃত্যুর খবরের আবহে শেয়ার করা হচ্ছে পুরনো ও অপ্রাসঙ্গিক ছবি 

False International

বিগত কিছু দিন থেকে দাগী সন্ত্রাসী ও আতঙ্কবাদী সংগঠন ‘জইশ-ই-মহম্মদ’-এর প্রধান মাসুদ আজহারের মৃত্যুর খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশাল চর্চায় রয়েছে। এই প্রসঙ্গে মাসুদ আজহারের ছবি সম্বলিত একটি পোস্ট যেখানে রয়েছে অন্য দুটি ছবি যার মধ্যে রয়েছে একটি বিধ্বস্ত গাড়ির ছবি ও একটি অগ্নিগর্ভের শিকার এক গাড়ি বা বাড়ি জাতীয় কিছু জিনিসের ছবি শেয়ার করে তা মাসুদ আজহারের মৃত্যুর খবরের আবহে শেয়ার করা হয়েছে। 

ছবিগুলো শেয়ার করে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে,” আনন্দের খবর, গতকাল ভোর ৫টায় মসজিদ থেকে বাড়ি ফেরার পথে কান্দাহার বিমান অপহরনের মূলচক্রী ও জইশ-ই-মহম্মদের মাথা মাসুদ আজহার “অজ্ঞাত ব্যাক্তি”র দ্বারা বোমা হামলায় জাহান্নামে গিয়েছে বলে অসমর্থিত সুত্রের থেকে জানা যাচ্ছে ! বাকি খবর আসছে । “অজ্ঞাত ব্যাক্তি”রা কিন্তু নতুন বছরেরও কাজ করা শুরু করেছে ! 😃।“ 

তথ্য যাচাই করে আমরা দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। অপ্রাসঙ্গিক ছবিকে মাসুদ আজহারের মৃত্যুর খবরের সাথে জুড়ে শেয়ার করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্ট আর্কাইভ 

তথ্য যাচাইঃ 

গুগলে প্রাসঙ্গিক কিওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে বিশ্বাসযোগ্য কোন সংবাদ প্রতিবেদন পাওয়া যায়না যেখানে অজ্ঞাত ব্যাক্তি কর্তৃক বোমা বিস্ফোরণে আতঙ্কবাদী মাসুদ আজহারের মারা যাওয়ার খবরকে সিদ্ধ করে।  

ছবিগুলোর আসল উৎসঃ 

প্রথম ছবিটি আতঙ্কবাদী মাসুদ আজহারের। 

দ্বিতীয় ছবিঃ 

ছবিটিকে গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করতেই ছবিটিকে ঘিরে অনেক সংবাদ প্রতিবেদন, টুইটার, ফেসবুক, ইন্সতা পোস্ট পাওয়া যায়। এক পাকিস্তানি এক্স (টুইটার) প্রোফাইল থেকে ছবিটি ২০১৯ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর তারিখের শেয়ার করে লেখা হয়েছে,”গাড়ি চালানোর সময় দয়া করে সেলফোন ব্যবহার করবেন না। ওভারটেক এবং ওভার স্পীডিং এড়িয়ে চলুন। সচেতনতা ছড়িয়ে দিন। তার আত্মা শান্তিতে বিশ্রাম করুক।“ 

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ‘MM News’-এর ১৫ সেপ্তেম্বর,২০১৯, তারিখের প্রতিবেদন অনুযায়ী, পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে দ্রুতগামী একটি গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি গাছের সাথে ধাক্কায় চারজন নিহত হয়েছিল। 

প্রতিবেদন আর্কাইভ 

তৃতীয় ছবিঃ 

‘ইকোনমিক্স টাইমস’-এর ২২ এপ্রিল,২০২১, তারিখের প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে-গভীর রাতে একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে দক্ষিণ-পশ্চিম পাকিস্তানের কোয়েটায় একটি বিলাসবহুল হোটেলের পার্কিং এলাকায় চারজন নিহত এবং ১১ জন আহত হয়েছে। পাকিস্তানে চীনের রাষ্ট্রদূত সেই হোটেলে অবস্থান করছিলেন কিন্তু বোমা বিস্ফোরণের সময় সেখানে ছিলেন না। 

প্রতিবেদন আর্কাইভ 

ডি ডবলু প্রতিবেদন আর্কাইভ 

উপরোক্ত তথ্যের ভিত্তিতে প্রমানিত হয় যে, ছবিগুলো পুরনো ও অপ্রাসঙ্গিক। 

নিষ্কর্ষঃ 

তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেণ্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। পুরনো ও অপ্রাসঙ্গিক ছবিকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে শেয়ার করা হচ্ছে। 

Avatar

Title:সন্ত্রাসী মাসুদ আজহারের মৃত্যুর খবরের আবহে শেয়ার করা হচ্ছে পুরনো ও অপ্রাসঙ্গিক ছবি

Written By: Nasim A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *