ওড়িশায় কালেক্টর অফিসে হামলার পুরনো ভিডিওকে নুপুর শর্মার ওপর হামলা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Communal False

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ভিডিও শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, ইসলাম ধর্মের পয়গম্বর হজরত মহম্মদ বিরোধী মন্তব্য করায় নুপুর শর্মার বাড়িতে হামলা চালানো হল। পোস্টের ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে অনেকগুলি লোকের একটি ভিড় একটি বাড়ির মুখ্য দরজায় দায়িত্বরত পুলিশকে উপেক্ষা করে ঢুকে পড়ছে। ভিড়কে নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ করছে। 

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “নুপুর শর্মার বাড়িতে হামলা।” 

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। ওড়িশায় ভদ্রক জেলায় বিজেপি সমর্থকদের কালেক্টরের অফিসে জোরপূর্বক ঢোকার পুরনো ভিডিওকে পয়গম্বর বিতর্কের সাথে দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্ট 

তথ্য যাচাই 

এই দাবির সত্যতা যাচায় করতে আমরা ভিডিওটিকে ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করি। ভিডিওর উপরে লেখা রয়েছে,  “ODISHA TELEVISION LTD”। গুগল সার্চের মাধ্যমে জানতে পারি এটি একটি ওড়িয়া সংবাদমাধ্যম। 

“ODISHA TELEVISION LTD” এর সংবাদ চানেলের নাম হল “OTV” অর্থাৎ ওড়িশা টিভি। ভাইরাল ভিডিও কেন্দ্রিক উপস্থাপনটি ২০২২ সালের ৬ জানুয়ারী তারিখে আপলোড করা হয়েছে যার শিরোনামে লেখা রয়েছে, “পঞ্চায়েত নির্বাচনে ওবিসি সংরক্ষণ। ভদ্রকে পুলিশের সঙ্গে বিজেপি কর্মীদের ধস্তাধস্তি।”

ওড়িশা টিভির ফেসবুক পেজে ভাইরাল এই ভিডিওটি ৬ জানুয়ারি, ২০২২, তারিখেই পোস্ট করা হয়েছে এবং ক্যাপশনের মাধ্যমে ভিডিওটিকে ওড়িশার বলে জানানো হয়েছে। 

প্রসঙ্গত, ওড়িশা ২০২২ পঞ্চায়েত ভোটে ও বি সি গোষ্ঠীর সংরক্ষনের দাবিতে বিক্ষুদ্ধ বিজেপি সমর্থকরা ভদ্রক জেলার কালেক্টর অফিসে হামলা চালিয়েছিল। বিস্তারিত পড়ুন এখানে, এখানে। 

উপরোক্ত তথ্য এবং প্রমাণ থেকে স্পষ্ট হয়ে যায় এই ভিডিওর সাথে নুপুর শর্মা বিতর্কের কোনও সম্পর্ক নেই। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিস্যান্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। ওড়িশায় ভদ্রক জেলায় বিজেপি সমর্থকদের কালেক্টরের অফিসে জোরপূর্বক ঢোকার পুরনো ভিডিওকে পয়গম্বর বিতর্কের সাথে দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:ওড়িশায় কালেক্টর অফিসে হামলার পুরনো ভিডিওকে নুপুর শর্মার ওপর হামলা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.