২০১৬ সালের ভিডিও শেয়ার করে ভুয়ো দাবি, ভারতে অ্যাম্বুলেন্স পাঠাচ্ছে পাকিস্তান

Coronavirus False

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক সম্প্রতি একটি পুরনো ভিডিও শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, পাকিস্তান থেকে ডাক্তার নার্স সহ অ্যাম্বুলেন্স পাঠানো হল ভারতে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, অনেকগুলি অ্যাম্বুলেন্স একের পর এক দাড়িয়ে রয়েছে এবং তারপর একটি রাস্তার ওপর দিয়ে সারি ধরে চলছে। ভিডিওটি দেখে বিজ্ঞাপন জাতীয় ভিডিও মনে হচ্ছে। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “হ্যা এটাই ইসলামের সৌন্দর্য!!!!! পাকিস্তান থেকে ডাক্তার, নার্স, এম্বুলেন্স, অক্সিজেন সহ চিরশত্রু ভারতের দিকে রওনা হলেন👌👌👌👌 তোরা মুসলমানের শত্রু হতে পারিছ কিন্তু মুসলমানরা কখন মুসলমানের শত্রু হয় না,,,,,।“

তথ্য যাচাই করে দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভুয়ো এবং ভিত্তিহীন। ২০১৬ সালের একটি ভিডিওকে করোনা ভাইরাসের সাথে যুক্ত করে বিভ্রান্তিকর পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

ফেসবুক

উল্লেখ্য, ভারতে দৈনিক করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ জায়গায় গিয়েছে। প্রতিদিন নতুন নতুন রেকর্ড তৈরি হচ্ছে। দৈনিক সংক্রমণের হার চার লক্ষেরও বেশি পৌঁছেছে। এই নতুন রেকর্ড নিয়েই বিশ্বে দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে ভারত এখন শীর্ষে। দৈনিক সংক্রমণের পাশাপাশি গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর সংখ্যাও চিন্তা বাড়িয়েছে। 

ভারতের পাশে দাঁড়াতে চেয়েছে পাকিস্তানের ইধি ফাউন্ডেশন। মোট ৫০টি অ্যাম্বুলেন্স দিয়ে সাহায্য করতে চেয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখেছেন ইধি ফাউন্ডেশনের প্রধান ফইজল ইদি। যদিও, কেন্দ্রের তরফে এই চিঠির কোনও প্রতিক্রিয়ার খবর এখনও জানা যায়নি। 

তথ্য যাচাই 

পোস্টের ভিডিওটিকে কয়েকটি ফ্রেমে ভাগ করে গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে ফলাফলে কোনও যথাযথ তথ্য পাওয়া যায় না। এরপর ভিডিওটিকে ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করে দেখতে পাই সবগুলি অ্যাম্বুলেন্সের ওপরে বিভিন্ন যায়গায় “CHHIPA” লেখা রয়েছে। এই শব্দটি দিয়ে ইউটিউবে কিওয়ার্ড সার্চ করে দেখতে পাই ২০১৬ সালে ২৫ মে এই ভিডিও শেয়ার করা হয়েছিল। “Chhipa Welfare Association (ছিপা ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশান)” নামে একটি উইটিউব চ্যানেল থেকে এই ভিডিওটি আপলোড করা হয়েছে। 

ইউটিউব 

কিওয়ার্ড সার্চ করে জানতে পারি, ছিপা ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশান হল পাকিস্তানের একটি বেসরকারি সমাজসেবী প্রতিষ্ঠান (এনজিও)। স্বাস্থ্য পরিষেবা থেকে শুরু করে রমজানে দুঃস্থ এবং গরীবদের ইফতারির ব্যবস্থা, বিভিন্ন রকম সমাজকল্যান মূলক কাজের সাথে যুক্ত এই সংস্থা। ছিপার ওয়েবসাইট থেকে জানতে পারি ২০১৬ সালের এই ভিডিওটি তাদের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানলে থেকেই শেয়ার করা হয়েছে। 

আরও দেখতে পাই এই প্রতিষ্ঠান ২০১৬ সালের ২৪ মে ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি তাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে শেয়ার করেছে। এর থেকে স্পষ্ট ভাবে বলা যেতে পারে এটি চার বছরের পুরনো ভিডিও। এর সাথে করোনা ভাইরাস বা ভারতের বর্তমান পরিস্তিতির কোনও যোগ নেই। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল। ২০১৬ সালের একটি ভিডিওকে করোনা ভাইরাসের সাথে যুক্ত করে বিভ্রান্তিকর পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:২০১৬ সালের ভিডিও শেয়ার করে ভুয়ো দাবি, ভারতে অ্যাম্বুলেন্স পাঠাচ্ছে পাকিস্তান

Fact Check By: Nasim A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *