মাসিক চক্রের পাঁচ দিন আগে বা পরে ভ্যাকসিন নেওয়া যাবে না? জানুন সত্য

Coronavirus False

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভুয়ো পোস্ট শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, মাসিক চক্র চলাকালীন করোনা ভ্যাকসিন নেওয়া যাবে না। পোস্টের ছবিতে লেখা রয়েছে, “করোনা ভ্যাকসিন নিতে যাচ্ছেন ভালো কথা… সাথে পিরিয়ড (Periods) কথা মাথায় রাখবেন… এই সময় শরীর স্বাভাবিকের তুলনায় অনেকাংশই দুর্বল থাকে … এই সময় করোনা ভ্যাকসিন নিলে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। তাই শুরুর পাঁচ দিনের আগে বা শেষ হওয়ার পাঁচ দিনের পরে ভ্যাকসিন নিতে পারেন। পিরিয়ড চলাকালীন ভ্যাকসিনতা এড়িয়ে যাওয়াই শ্রেয়। (পিরিয়ড লজ্জা নয় মাতৃত্বের অহঙ্কার)।“ পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “পিরিয়ডটা কারোর কাছে লজ্জা আর কারোর কাছে অহঙ্কার পার্থক্য শুধু মানসিকতার ..”। 

তথ্য যাচাই করে আমরা দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভুয়ো এবং বিভ্রান্তিকর। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন এই দাবি ভিত্তিহীন এবং মানুষের এজাতীয় ভুল তথ্য এড়িয়ে চলা উচিত। 

Corona Periods.png
ফেসবুক আর্কাইভ

তথ্য যাচাই

এই দাবির সত্যতা যাচাই করতে আমরা প্রথমে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) এবং সেন্টার ফর ডিসিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)-এর করোনা এবং ভ্যাকসিন বিষয়ক সমস্ত নির্দেশিকা ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করে দেখি। মাসিকচক্র বা পিরিয়ডসের সময় ভ্যাকসিন না নেওয়া সম্বন্ধে কোনও কিছুই বলা হয়নি। 

আমেরিকান কলেজ অফ অবস্টেট্রিক্স অ্যান্ড গাইনোকোলজি (এসিওজ) কোথাও উল্লেখ করেনি যে মাসিক চক্র চলাকালীন ভ্যাকসিন নেওয়া যাবে না।  

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক-এর তরফেও কোথাও একবারও বলা হয়নি যে পিরিয়ড চলাকালীন ভ্যাকসিন নেওয়া যাবে না। 

কোভ্যাক্সিনের নির্মাতা ভারত বায়োটেক এবং কোভিশিল্ডের প্রস্তুতকারক সেরাম ইন্সটিটিউট অফ ইন্ডিয়া ভ্যাকসিনের নেওয়ার পরে সুবিধা এবং অসুবিধা নিয়ে ফ্যাক্ট তালিকা প্রকাশ করেছে। দুইয়ের একটিতেও মাসিক ক্রিয়া সম্বন্ধে কিছু উল্লেখ করা হয়নি। 

আওরঙ্গবাদ সরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের প্রসূতি এবং স্ত্রীরোগ বিভাগের প্রধান ডাঃ শ্রীনিবাস গাড়াপ্পা ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডোকে জানিয়েছেন ভাইরাল এই দাবিটি ভুয়ো। 

তিনি বলেন, “মাসিক চক্রের বিভিন্ন পর্যায়ে ইস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টেরনের ওঠানামা দেখতে পাওয়া যায়। মাসিকচক্রের শেষ পাঁচ দিনের সময় প্রোস্টাগ্ল্যান্ডিন নামক হরমোন, যা লিপিডের মতো আজ করে, প্রদাহজনক প্রতিক্রিয়া কমিয়ে দেয়। এই প্রদাহজনক প্রতিক্রিয়া ভ্যাকসিনের প্রতি শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতার ওপর কোনও প্রভাব ফেলেনা। করোনা ভ্যাকসিনের সাথে পিরিয়ডসের কোনও সম্পর্কই নেই।“  

ডাঃ গাড়াপ্পা আরও বলে মাসিক চক্রের আগে বা পরে ভ্যাকসিন না নেওয়ার কোনও কারণ নেই। যদি, কেউ সুস্থ অনুভব না করে তবে ভ্যাকসিন আগে তার ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত। 

প্রত্যেকের সহ্য করার ক্ষমতা আলাদা। অনেকেরই মাসিক ক্রিয়ার সময় অসুবিধা 

দেখা যায় কিন্তু তার জন্য টিকাকরণ না নেওয়ার ধারণা একবারেই ভুল,” তিনি জানান। 

ডাঃ তনয়া নরেন্দ্র এই দাবি প্রতিক্রিয়ায় টুইটারে এটিকে “একেবারেই ভুয়ো” বলেছেন। 

পিরিয়ডসের সময় ভ্যাকসিন নেওয়া নিরাপদ। মাসিকের সময় প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় না। ভ্যাকসিনও প্রতিরোধ ক্ষমতা কমায় না উল্টে বাড়ায়। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ভ্যাকসিন নিন এবং এজাতীয় ভুয়ো দাবি এড়িয়ে চলুন,” একটি টুইটে তিনি বলেন।

প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো-এর তরফেও এটিকে ভুয়ো বলা জানানো হয়েছে। একটি টুইট করে পিআইবি ফ্যাক্ট চেক জানিয়েছ, “মাসিক চক্রের পাঁচ দিন আগে ও পরে মেয়ে ভ্যাকসিন না নেওয়ার দাবিটি ভুল।“ 

ইংরেজি সংবাদমাধ্যম “দ্যা গার্ডিয়ান” জানিয়েছে ভ্যাকসিনের সাথে মাসিক ক্রিয়া পরিবর্তনের ওপর কোনও তথ্য এখনও পাওয়া যায়নি।

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত সত্য নয়। করোনার ভ্যাকসিনের সাথে মাসিক চক্রের কোনও সম্পর্ক নেই। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন এই দাবি ভিত্তিহীন এবং মানুষের এজাতীয় ভুল তথ্য এড়িয়ে চলা উচিত।

Avatar

Title:মাসিক চক্রের পাঁচ দিন আগে বা পরে ভ্যাকসিন নেওয়া যাবে না? জানুন সত্য

Fact Check By: Nasim A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *