২০১৮ সালে আয়োজিত মিছিলের পুরনো ভিডিওকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে শেয়ার করা হচ্ছে  

Communal Misleading

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ভিডিও শেয়ার করে সেটিকে হিন্দু রাষ্ট্রের দাবিতে অযোধ্যায় আয়োজিত সমাবেশের ভিডিও বলে দাবি করা হচ্ছে। পোস্টের ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একটি রাস্তার মাঝে গেরুয়া বাহিনীর এক বিশাল মিছিল যাচ্ছে। ভিডিওতে বলা হচ্ছে হিন্দু রাষ্ট্রের দাবিতে ডক্টর প্রাবিন তোগাড়িয়ার নেতৃত্বে এই সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। 

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে “*অযোধ্যায় শুরু হল হিন্দু রাষ্ট্রের দাবি*…🙏🚩 “ 

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। ২০১৮ সালে অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণের দাবিতে আয়োজিত মিছিলের পুরনো ভিডিওকে ভুয়ো দাবির সাথে ভাইরাল করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্ট 

তথ্য যাচাই 

এই দাবির সত্যতা যাচায় করতে আমরা প্রথমে ভিডিওটিকে ইনভিড টুলের মাধ্যমে কিফ্রেমে ভেঙ্গে গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে এই একই ভিডিও অনিল মিশ্র নামের এক ফেসবুক প্রোফাইলে খুঁজে পাই। দেখতে পাই ২০১৮ সালের ২৪ অক্টোবর তারিখে এই ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, “পরিক্রমার পথে অযোধ্যায় রামভক্ত।”

দিপাক সাইনি নামের এক ফেসবুক ব্যবহারকারী এই একই ভিডিও শেয়ার করে বলেছে, “আমি গর্বিত যে রাম মন্দির নির্মাণের জন্য সর্বশেষ আন্দোলন ২০১৮ সালের অক্টোবরে শ্রী প্রবীণ ভাই তোগাডিয়া জির নেতৃত্বে হয়েছিল, যেখানে আমিও জয় শ্রী রাম হিন্দুতে যোগ দেওয়ার সুযোগ পেয়েছি।”

এখান থেকে স্পষ্ট হয়ে যায়, ভাইরাল এই ভিডিওটি সম্প্রতির নয়, প্রায় ৪ বছর পুরনো। 

এই সুত্র ধরে ইউটিউবে প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের করলে কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের ইউটিউব চ্যানেলে এই মিছিল কেন্দ্রিক ভিডিও উপস্থাপনা খুঁজে পাই। ২০১৮ সালের ২৩ অক্টোবর তারিখে আপলোড করা ’ইন্ডিয়া নিউজ’-এর এই ভিডিও উপস্থাপন অনুযায়ী, প্রশাসন রামকোট পরিক্রমা করতে বাধা দেওয়ার পরে এএইচপি নেতা প্রবীণ তোগাদিয়ার সমর্থকরা পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। আইনশৃঙ্খলা বিঘ্নিত করার প্রচেষ্টাকে আটকাতে অযোধ্যায় ১৪৪ ধারা লাঘু করা হয়েছিল। 

’নিউজ১৮ ইউপি উত্তরাখান্ড’-এর প্রতিবেদনটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে। 

প্রেস রিলিজের মাধ্যমে ডঃ প্রবীণ তোগাডিয়া জানিয়েছিল এই অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের জন্য এই সভা ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসে সে পরিচালিত করেছিল।

৫ অক্টোবর, ২০১৮ তারিখের এক টুইটে বলেছে “রাম মন্দির নিয়ে ’এএচপি’র অযোধ্যা পদযাত্রা নিয়ে আজকের সংবাদ সম্মেলনে প্রেস বিজ্ঞপ্তি এবং সমর্থন সংক্রান্ত নথিগুলি মিডিয়াকে দেওয়া হয়েছে। ১৯৮৯ সালে পালানপুরে (হিমাচল প্রদেশ) বিজেপি যে প্রস্তাব পাস করেছিল, সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকলে সংসদে আইন করে অযোধ্যায় রাম মন্দির তৈরি করবে।  

এখানে বলে রাখা ভালো, সুপ্রিম কোর্টের ২০১৯ সালে অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের অনুমতি দেয়ার আগেই ডঃ প্রবীণ তোগাডিয়ার নেতৃত্বে এই সভা ২০১৮ সালে পরিচালিত হয়েছিল।  

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। ২০১৮ সালে অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণের দাবিতে আয়োজিত মিছিলের পুরনো ভিডিওকে ভুয়ো দাবির সাথে ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:২০১৮ সালে আয়োজিত মিছিলের পুরনো ভিডিওকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে শেয়ার করা হচ্ছে

Fact Check By: Nasim A 

Result: Misleading


Leave a Reply

Your email address will not be published.