পাকিস্তানের লাহোরে শোক পালন মিছিলের একটি পুরনো ভিডিওকে নূপুর শর্মা বিতর্কের সাথে জুড়ে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Communal False

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ভিডিও শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, জয়পুরে নামাজের পর রাম ভক্তরা হনুমান চালিশা পড়তে শুরু করে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একটি মেট্রোব্রিজের নিজে জনগনের একটি বিশাল ভিড় জমে রয়েছে।

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছেম, “আজ জয়পুরে নামাজের পাল্টা উত্তর দেওয়ার সময় রাম ভক্তরা মাঝ রাস্তায় হনুমান চালিসা পড়েন।❤ তাদের সংখ্যা দেখে আমার মন খুশি… 🤗❤ আমার হিন্দু জেগে উঠেছে….🙏🙏।”

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের দাবি ভুল এবং বিভ্রান্তিকর। পাকিস্তানের লাহোরে রাজনৈতিক নেতার মৃত্যুর শোক পালনের ভিডিওকে জয়পুরের ঘটনা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্ট 

উল্লেখ্য, সম্প্রতি বিজেপি নেতা নুপুর শর্মা এবং নবীন জিন্দালের ইসলাম ধর্মের নবী হযরত মুহাম্মদকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার পর দেশজুড়ে বিক্ষোভ শুরু হয়। ইতিমধ্যেই ভারতের হাওড়া জেলায় এই ঘটনার প্রতিবাদে অনেকেই রাস্তায় মিছিল নামায়। ধীরে ধীরে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হতে শুরু করে এবং অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি হয়। 

অন্যদিকে, দেশের কিছু কিছু জায়গায় নূপুর শর্মার সমর্থনেও মিছিল বের করা হয়। পড়ুন বিস্তারিত এখানে। 

তথ্য যাচাই 

এই দাবির সত্যতা যাচাই করতে আমরা ভিডিওটিকে ইনভিড টুলের মাধ্যমে কয়েকটি কি-ফ্রেমে ভেঙ্গে গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে, লাব্বাইক নিউজ চ্যানেলে এই ভিডিওর অনুসন্ধান পাই। ২০২১ সালের ৪ জানুয়ারি তারিখে আপলোড করা এই ভিডিওর শিরোনামে লেখা রয়েছে, “আল্লামা খাদিম হুসাইন রিজভী চেহলাম | টিএলপি চেহলাম ২০২১।”

প্রসঙ্গত, চেহলাম হল একজন ব্যক্তির মৃত্যুর ৪০ দিন পর পালিত ইসলামিক ধর্মীয় অনুষ্ঠান।

এই সুত্র ধরে গুগলে প্রাসঙ্গিক কিওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, রাজনৈতিক দল তেহরিক-ই-লাব্বাইক পাকিস্তান (টিএলপি)-এর প্রধান খাদিম হোসেন রিজবি ১৯ নভেম্বর ২০২০ তারিখে মৃত্যুবরন করেন। লাহোরের মুলতান রোডের ব্যাটারি মোড়ের কাছে রেহমাতুল লিল আলামীন মসজিদের কাছে ৩ জানুয়ারী ২০২০ তারিখে তাঁর চেহলাম পালন করা হয়েছিল। লাহোরের ইয়াতেম খানা চক থেকে স্কিম মোড় পর্যন্ত পুরো রাস্তাটি সাজানো হয়েছিল চেহলাম পালনের উদ্দেশ্যে। 

প্রতিবেদন 

ভাইরাল ভিডিওতে দেখতে পাওয়া মেট্রো লাইনটি লাহোরের কমলা মেট্রো লাইনের সাথে মিলে যায়। নীচে তুলনামূলক ফ্রেমটি দেখুন। 

তথ্য প্রমানের ভিত্তিতে প্রমানিত হয় ভাইরাল ভিডিওটি পুরনো এবং এটি পাকিস্তানের ঘটনা। এর সাথে জয়পুর বা নূপুর শর্মা বিতর্কের কোনও সম্পর্ক নেই।

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। পাকিস্তানের লাহোরে রাজনৈতিক নেতার মৃত্যুর শোক পালনের ভিডিওকে জয়পুরের ঘটনা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

Avatar

Title:পাকিস্তানের লাহোরে শোক পালন মিছিলের একটি পুরনো ভিডিওকে নূপুর শর্মা বিতর্কের সাথে জুড়ে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.