ইটাওয়া পুলিশ সুপারের পুরনো ভিডিও কানপুর হিংসার ঘটনা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Missing Context Social

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে তিনটি ছবি শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, বিজেপির বিধায়ক সহ সমর্থকরা বোম নিয়ে এসেছে বলছে কানপুর পুলিশ। পোস্টের ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একজন পুলিশ কানে ফোন রেখে বলছেন, “বিজেপি সমর্থকরা বোম নিয়ে এসছে এবং এই লোকগুলো আমাকেও চড় মেরেছে। বিজেপির বিধায়ক সহ বিমাল নামের একজন ও সদস্য আছে।”

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “ভিডিও টা বেশি বেশি সিয়ার করুন #কানপুরে, পুলিশকর্মীরা নিজেই বলছেন যে #BJP_MLA #বোমা এনেছে।  তিনি বলছেন তার এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে।  কিন্তু তারপরও একতরফা পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে, কেন? এই ভিডিও প্রমাণ দিচ্ছে, #BJP আমলে এইভাবেই মুসলিমরা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে।”    

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। উত্তরপ্রদেশের ইটাওয়া শহরের পুলিশ সুপারের পুরনো ভিডিওকে সম্প্রতির কানপুর হিংসার ঘটনা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্ট  

উল্লেখ্য, গত মাসের ২৭ তারিখ বিজেপির মুখপাত্র নুপুর শর্মা জাতীয় খবরের চ্যানেলে ইসলাম ধর্মের পয়গম্বর হজরত মহম্মদ ও তার স্ত্রী আয়েশা সম্পর্কে একটি বিতর্কিত মন্তব্য করে। এই ঘটনার পর দেশের বিভিন্ন যায়গায় অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি হয়। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই কানপুরে অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি হয়। 

তথ্য যাচাই 

এই দাবির সত্যতা যাচায় করতে আমরা প্রথমে ইউটিউবে প্রাসঙ্গিক কিওয়ার্ড সার্চ করি। সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি-এর ইউটিউব চ্যানেলে ভাইরাল এই ভিডিও কেন্দ্রিক একটি উপস্থাপন দেখতে পাই। ২০২১ সালের ১০ জুলাই তারিখে আপলোড করা এই ভিডিওর শীর্ষকে লেখা হয়েছে, “ইউ.পি. হিংসা: ‘বিজেপির লোকেরা আমাকে চড় মেরেছে’, ইটাওয়ার এসপির ভিডিও ভাইরাল।” ভিডিওতে ফোনে যাকে কথা বলছে দেখা যাচ্ছে তিনি হলেন উত্তরপ্রদেশের ইটাওয়ার পুলিশ সুপার প্রশান্ত কুমার। 

সংবাদমাধ্যম ‘হিন্দুস্তান সমাচার লাইভ’-এর ফেসবুক পেজেও এই ভিডিওর দীর্ঘ সংস্করণ ২০২১ সালের ১১ জুলাই তারিখে পোস্ট করা হয়।  

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালে উত্তরপ্রদেশে ব্লক প্রধান নির্বাচনের ভোট হয়। নাম মনোনয়নের পর নির্বাচনের সময় বারাবাঙ্কি, সিদ্ধার্থনগর এবং আলিগড়, আগ্রা, উন্নাও, ইটাওয়া এবং চান্দৌলি ছাড়াও অনেক জায়গায় অশান্তিকর পরিবেশ তৈরি করে ভোট বন্ধ করার চেষ্টা করা হয়। ভাইরাল এই ভিডিওটি ওই সময়েরই ঘটনা। 

তথ্য ও প্রমানের ভিত্তিতে স্পষ্ট হয়ে যায়, ভাইরাল ভিডিওটি প্রায় ১ বছরের পুরনো এবং সম্প্রতির কানপুর হিংসার সাথে কোন ভাবেই সম্পর্কিত নয়। এই ভিডিওটি উত্তরপ্রদেশেরই ইটাওয়া শহরের, কানপুরের নয়। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিস্যান্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। উত্তরপ্রদেশের ইটাওয়া শহরের পুলিশ সুপারের পুরনো ভিডিওকে সম্প্রতির কানপুর হিংসার ঘটনা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

Avatar

Title:ইটাওয়া পুলিশ সুপারের পুরনো ভিডিও কানপুর হিংসার ঘটনা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Fact Check By: Nasim A 

Result: Missing Context


Leave a Reply

Your email address will not be published.