চলন্ত প্লেনের ওপর শুয়ে আফগান ব্যক্তি?- সম্পাদিত ভিডিও ভুয়ো দাবির সাথে ভাইরাল

False International

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ভিডিও পোস্ট শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, তালিবান আতঙ্কে উড়ন্ত বিমানের টারবাইন ইঞ্জিনে শুয়ে একজন ব্যক্তি আফগানিস্তান ছেড়ে পালাচ্ছে। ১ মিনিট ৩০ সেকেন্ডের এই ভিডিওটি সংবাদ মাধ্যম নিউজ ১৮ সম্প্রচার করে। পরে তারা ভুল শুধরে নেন কিন্তু ততক্ষণে তা ভাইরাল হয়ে যায়। ভিডিওতে ২ টি আলাদা আলাদা ঘটনার ভিডিও ক্লিপ দেখা যাচ্ছে। খবরের উপস্থাপককে ভিডিওর বর্ণনা দিতে শোনা যাচ্ছে। প্রথমের ১ মিনিট ২ সেকেন্ডে দেখা যাচ্ছে, একজন লোক বিমানের টারবাইন ইঞ্জিনের উপর শুয়ে আছেন। উপস্থাপক বলছেন তালিবানদের হাত থেকে প্রান বাঁচাতে মরিয়া হয়ে টারবাইনের উপর উঠে পড়েছেন। ভিডিওর পরবর্তি অংশে দেখা যাচ্ছে কিছু সংখ্যক লোক এলোপাথারি ভাবে হেটে চলেছেন এবং তালিবানরা জেলে বন্দী থাকা কয়েদিদের মুক্ত করলেন বলতে শোনা যাচ্ছে।  

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে “দেশ ছাড়ার হিড়িক,তালিবানের থেকে বাঁচতে বিমানে মরণ-যাত্রা ।।।”  

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের মাধ্যমে করা দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। ভিয়েতনামের ‘হুয়ে জুয়ান মাই’ দ্বারা ডিজিটালি সম্পাদিত ভিডিওকে আফগান-তালিবান বিবাদের সঙ্গে যুক্ত করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।  

ফেসবুক পোস্ট 

উল্লেখ্য, ২০ বছর পর, ১৫ অগস্ট রাজধানী কাবুল দখলের মাধ্যেম আফগানিস্তান দখল করেছে জঙ্গি সংগঠন তালিবান। তারপর থেকেই অশান্ত কাবুল। আতঙ্কে রয়েছে দেশবাসী, কি হবে তাদের ভবিষ্যৎ? দেশ ছাড়ার জন্য হুড়োহুড়ি লেগেছে কাবুল বিমানবন্দরে। ভীত আফগানবাসী মাতৃভূমি ছেড়ে যেতে যায় কারণ সেখানে থাকলে তালিবানদের নিপীড়নের শিকার হতে হবে।

তথ্য যাচাই

এই ভিডিওর আসল উৎস জানার জন্য ভিডিওটিকে ‘ইনভিড-উই-ভেরিফাই’ টুলের মাধ্যমে কি-ফ্রেমে ভেঙ্গে গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম পিন্টারেস্ট-এর একটি পোস্ট দেখতে পাওয়া যায় যেখানে একই রকম ভিডিওর সন্ধান মেলে। ওই ভিডিওতে দেখা যায়, একজন ব্যাক্তি প্লেনের টারবাইন ইঞ্জিনের উপর চেয়ার পেতে হাতে একটি গ্লাস নিয়ে বসে আছে। 

আর্কাইভ ভিডিও

ভিডিওটি ভালো করে লক্ষ্য করলে দেখা যায় ‘হুই কুন হোয়া’ নামে একটি ওয়াটারমার্ক রয়েছে।  

এই সুত্র ধরে আমরা কিওয়ার্ড সার্চ করে এই হোয়া’র ফেসবুক প্রোফাইল খুঁজে বের করি। ফেসবুক ব্লু টিক ভেরিফাইড এই হ্যান্ডেলেরে বায়োতে নিজেকে ছবি সম্পাদনের কারিগরি বলে দাবি করেন তিনি। তার প্রোফাইল ঘেঁটে দেখতে পাই, তিনি প্রফেশনার ডিজিটার সম্পাদক। মজার ভিডিও সম্পাদনা এবং ফটোশপে দক্ষ তিনি। তার টাইমলাই এজাতীয় সম্পাদিত অনেক ছবি রয়েছে। কোথাও তাকে দেখা যাচ্ছে তিনি রোনাল্ডোর সাথে দাড়িয়ে আছেন আবার কোথাও বিখ্যাত বিদেশী ছবির চরিত্র অ্যাভেঞ্জার্সদের সাথে বসে রয়েছেন। 

আর্কাইভ প্রোফাইল 

তার প্রোফাইলে খুঁজতে খুঁজতে ২০২০ সালের ১৭ আগস্ট একটি পোস্টে ভাইরাল ভিডিওটি পাওয়া যায়। একটি টিকটক ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, তিনি বালিশ নিয়ে প্লেনের টারবাইনের উপর শুয়ে রয়েছেন। 

আর্কাইভ

ইউটিউবে প্রাসঙ্গিক কিওয়ার্ড সার্চ করে তার ইউটিউব চ্যানেল খুঁজে বের করি। চানেলের ডেসক্রিপশন বক্সে ভিয়েতনামি ভাষায় লেখা আছে, “দৈনন্দিন জীবন এবং ফটোশপের অনেক আকর্ষণীয় বিষয়ের ভ্লগের জন্য বিশেষ চ্যানেল। এটি আমার অফিসিয়াল চ্যানেল, কোন সাব-চ্যানেল নেই।” ২০২০ সালের ১৭ ডিসেম্বর আপলোড করা একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ওই একই টারবাইনের ওপর একবার বসে রয়েছেন, শুয়ে রয়েছেন এবং কম্পিউটারে কাজ করছেন। এমনকি কখনও টারবাইন ইঞ্জিনের উপর রান্না করছেন। 

এই সমস্ত তথ্য দেখে বলতে পারি টারবাইন ইঞ্জিনের উপর শুয়ে থাকার ভিডিওটি আফগান বাসিন্দার আমেরিকা যাওয়ার নয়। এটি একটি সম্পাদিত ভিডিও। 

পোস্টের মাধ্যমে করা ভিডিও দ্বিতীয় অংশের খবরটি সত্য। দি কুইন্ট-এর ১৮ অগস্টের একটি প্রতিবেদনেআফগান বন্দিদের মুক্তির ভাইরাল ভিডিও দেখা যায়।  

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। ভিয়েতনামের ‘হুয়ে জুয়ান মাই’ দ্বারা ডিজিটালি সম্পাদিত ভিডিওকে আফগান-তালিবান বিবাদের সঙ্গে যুক্ত করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:চলন্ত প্লেনের ওপর শুয়ে আফগান ব্যক্তি?- সম্পাদিত ভিডিও ভুয়ো দাবির সাথে ভাইরাল

Fact Check By: Nasim A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *