উদ্ধব ঠাকরের ঘরে সরকার পতনের আগে থেকেই শিবাজীর মূর্তি, গেরুয়া পতাকা এবং বালাসাহেবের ছবি রাখা ছিল

False Political

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পোস্ট শেয়ার করে দাবি করার হচ্ছে, সরকারের পতন হওয়ার পর অফিসে শিবাজী মহারাজের মূর্তি, গেরুয়া পতাকা এবং বালাসাহেব ঠাকরের ছবি আনলেন মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। পোস্টে দেখা যাচ্ছে মোট দুটি ছবি রয়েছে। দুটিতেই দেখা যাচ্ছে উদ্ধব ঠাকরে একটি ঘরে বসে রয়েছেন। একটি ছবিতে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর পেছনে ভারতীয় পতাকা রয়েছে এবং দ্বিতীয় ছবিতে তার পেছনে শিবাজী মহারাজের মূর্তি, গেরুয়া পতাকা এবং বালাসাহেব ঠাকরের ছবি রয়েছে। 

পোস্টের ছবির উপরে লেখা রয়েছে, “সরকারের পতন ঘটতেই ফিরে এসেছে বালাসাহেব ঠাকরের ছবি, গেরুয়া পতাকা, শিবাজী মহারাজের মূর্তি। দম্ভ এবং অহংকারের পতন এভাবেই হয়।”

তথ্য যাচাই করে দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভুল এবং বিভ্রান্তিকর। সরকার পতনের আগে থেকেই উদ্ধব ঠাকরের ঘরে শিবাজী মহারাজের মূর্তি, গেরুয়া পতাকা এবং বালাসাহেব ঠাকরের ছবি রাখা ছিল।

ফেসবুক পোস্টআর্কাইভ

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে। কয়েকদিন আগে দলীয় কোন্দলের কারণে শিবসেনার বেশ কয়েকজন বিধায়ক রাজ্য ছেড়ে প্রথমে গুজরাটে যান তারপর তাদের আসামের গুয়াহাটিতে নিয়ে গিয়ে বিলাশবহুল হোটেলে রাখা হয়। ইতিমধ্যেই বিরোধী দল বিজেপি রাজ্যপালের কাছে ফ্লোর টেস্টের আবেদন করে। মঙ্গলবার সন্ধায় উদ্ধাব ঠাকরে মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দেন। এদিন রাজভবন থেকে বেরিয়ে বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবিশ বলেন, “মহারাষ্ট্রের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন একনাথ শিন্ডে। আমরা নতুন সরকারকে পূর্ণ সমর্থন দেব। কিন্তু আমি ব্যক্তিগত ভাবে সরকারের অংশ হচ্ছি না।” পড়ুন বিস্তারিত

তথ্য যাচাই

প্রথমে আমরা নিচের ছবিটিকে গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে কোনও যথাযথ তথ্য পাওয়া যায় না। এরপর আমরা উদ্ধব ঠাকরের বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে গিয়ে অনুসন্ধান শুরু করি। উদ্ধব ঠাকরের ফেসবুক পেজ থেকে দেখতে পাই শিবসেনার দলীয় কোন্দল বা মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার অনেক আগে থেকে উদ্ধব ঠাকর এই ঘর থেকে লাইভ করছেন। ভিডিওতে পোস্ট দেখা যাচ্ছে তার পেছনে শিবাজী মহারাতের মূর্তি, গেরুয়া পতাকা এবং বালাসাহেব ঠাকরের ছবি দেওয়া রয়েছে। লাইভ ভিডিওগুলি দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 

চলতি বছরের ২৫ জানুয়ারি তারিখের একটি লাইভ ভিডিওতেও উদ্ধব ঠাকরের অফিসে রাখা শিবাজী মহারাজের মূর্তি, গেরুয়া পতাকা এবং বালাসাহেব ঠাকরের ছবি দেখতে পাওয়া যায়। 

২০২১ সালের একটি লাইভ ভিডিওতে দেখা যায় উদ্ধব ঠাকরের ঘরে শিবাজী মহারাজের মূর্তি এবং গেরুয়া পতাকা রয়েছে। এই ভিডিওতে বালাসাহেব ঠাকরের ছবি দেখতে পাওয়া যায় না। 

২০২১ সালের মে মাসের একটি ভিডিওতে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ঘরে শিবাজী মহারাজের মূর্তি দেখতে পাওয়া যায়। 

এর থেকে স্পষ্ট হয়ে যায় শিবসেনার কোন্দল সামনে আসার অনেক আগে থেকেই উদ্ধব ঠাকরের ঘরে শিবাজী মহারাজের মূর্তি রাখা ছিল। 

এরপর পোস্টের প্রথমের ছবিটি গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। সংবাদমাধ্যম ‘জি বিজনেস’ ২০২১ সালের ১৩ এপ্রিলের একটি প্রতিবেদনে এই ছবিটি পাওয়া যায়। এই প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০২১ সালে করোনা লকডাউনের নতুন বিধির বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে ১৪ এপ্রিল সকলের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখবেন। 

উপরোক্ত তথ্য এবং প্রমাণ থেকে স্পষ্ট হয়ে যায় ভাইরাল পোস্টের দুটি ছবিই পুরনো। উদ্ধব ঠাকরের ঘরে শিবাজী মূর্তি, গেরুয়া পতাকা এবং বালাসাহেব ঠাকরের ছবি আগে থেকেই ছিল। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। সরকার পতনের আগে থেকেই উদ্ধব ঠাকরের ঘরে শিবাজী মহারাজের মূর্তি, গেরুয়া পতাকা এবং বালাসাহেব ঠাকরের ছবি রাখা ছিল।   

Avatar

Title:উদ্ধব ঠাকরের ঘরে সরকার পতনের আগে থেকেই শিবাজীর মূর্তি, গেরুয়া পতাকা এবং বালাসাহেবের ছবি রাখা ছিল

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.