না, এটি এবছরের বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের ঘটনা নয়

False Politics

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন চলাকালীন একটি পুরনো ভিডিও শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে এভিএম মেশিনে কারচুপি করছে বিজেপি। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একজন দুই নাম্বার বোতাম টিপছে কিন্তু ভোট যাচ্ছে তিন নাম্বার বোতামের বিজেপি প্রার্থীকে। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “দেখুন… দেখুন ভিডিওটিই প্রমাণ!! বাহঃ নির্বাচন কমিশন। এতদিন দেশের গণতন্ত্র যে ভাবে হত্যা করছে বিজেপি! আজ বাংলার মানুষের গণতন্ত্র সেই ভাবেই হত্যা করছে বিজেপি”। 

তথ্য যাচাই করে আমরা দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভুয়ো এবং বিভ্রান্তিকর। এটি ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের একটি ঘটনার ভিডিও। 

ফেসবুক

উল্লেখ্য, বাংলার ২৯৪টি আসনে মোট ৮ দফায় ভোট চলছে। তার মধ্যে ৪ দফার ভোট সম্পূর্ণ হয়েছে। বাকি ৪ দফার ভোট শেষ হবে ২৯ এপ্রিল এবং ফল প্রকাশ হবে ২ মে।  

তথ্য যাচাই 

প্রথমে ছবিটিকে ইনভিড টুলে কয়েকটি ফ্রেমে ভেঙে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে দেখতে পাই ২০১৯ সালের ২৬ মে এই ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে। এর ক্যাপশনে লেখা রয়েছে,
ইভিএম মেশিন নিষিদ্ধ করা হোক হাতির বোতাম টেপার পরও বিজপির পদ্ম চিহ্নে ভোট যাচ্ছে”। 

ফেসবুক আর্কাইভ 

কিওয়ার্ড সার্চ করে আরও দেখতে পাই এই ভিডিওটি ২০১৯ সালের ২১ মে তারিখেও অন্য একটি ফেসবুক পেজ থেকে শেয়ার করা হয়েছিল। এই ভিডিওর ক্যাপশনেও একই দাবি করা হয়েছিল। 

আর্কাইভ

এর থেকে স্পষ্ট হয়ে যায় যে এটি এবছররে বিহার বিধানসভা নির্বাচনের ভিডিও নয়। এটি ২০১৯ সালের ভিডিও। 

ভিডিওটিক ইনভিড টুলে ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করে ইভিএমের প্রথম তিনটি রাজনৈতিক দলের প্রার্থীর নামে বুঝতে পারি। সবার ওপরে রয়েছে কংগ্রেসের রাজ কিশোর সিংহ, তারপরে রয়েছে বহুজন সমাজ দলের রাম প্রসাদ চৌধুরী এবং তৃতীয় নাম্বারে রয়েছে বিজেপির হরিষ চন্দ্র আলিয়াস হরিষ দ্বিবেধী। এরা সবাই উত্তরপ্রদেশের বস্তি লোকসভা ক্ষেত্রের প্রার্থী হয়ে নির্বাচন লড়েন। ৪৪.৬৮% ভোট পেয়ে বিজেপি সেখানে জয়লাভ করে। 

তথ্যঃ নিউজ ১৮  

আরও বুঝতে পারি যিনি ইভিএমে বোতাম টিপছেন তিনি একসাথে হাতি এবং পদ্ম চিহ্ন টিপছেন। একসাথে দুটি বোতাম টেপার কারনেই হাতি চিহ্নে যায়গায় পদ্ম চিহ্নে ভোট পরছে। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের সময়ের একটি ভিডিওকে এবছরের বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের ঘটনা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

Avatar

Title:না, এটি এবছরের বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের ঘটনা নয়

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.