বাবরি মসজিদ মামলার শুনানির পর হিন্দু-মুসলিম সম্প্রদায়ের মিলনের ছবিকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে জুড়ে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Partly False

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ছবি শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, তাবলীগের মেহনতে আফ্রিকার ঘানায় একসঙ্গে ১৫টি গ্রামের ৬৮৩১ জন ইসলাম ধর্ম গ্রহন করল। পোস্টের ছবিতে দেখা যাচ্ছে এক মৌলবি সাহেব ও একজন হিন্দু পুরহিত   

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে “আলহামদুলিল্লাহ তাবলীগের মেহনতে আফ্রিকার ঘানা এলাকায় ১৫ টি গ্রামের ৬৮৩১ জন মানুষ একসঙ্গে ‘ইসলাম ধর্ম’ গ্রহণ করলেন ভালোবাসা টা কেবল দাওয়াত ও তাবলীগ কে ঘিরেই……!🖤🌻”    

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। রাম মন্দির ও বাবরি মসজিদ সংক্রান্ত দীর্ঘ মামলার শুনানির পর দুই সম্প্রদায়ের মিলনের ছবিকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে শেয়ার করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্ট আর্কাইভ 

তথ্য যাচাই 

এই ছবির আসল উৎস খুঁজতে আমরা ছবিটিকে গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে স্টক ইমেজ সংস্থা গেট্টী ইমেজ-এর ছবি গ্যালারিতে অনুসন্ধান পাওয়া যায়। ছবির বর্ণনা থেকে জানা যায়, ছবিটি ২০১৯ সালের ১৬ অক্টোবর তারিখে দিল্লীতে তোলা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টে রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ মামলার শুনানির পর এই ছবি তোলা হয়। ছবিতে দেখতে পাওয়া ব্যাক্তি দুজন হলেন অযোধ্যাবর্তি কমিটির সভাপতি মোলানা সুহাইব কাসমির ও জোশিমঠ আখাড়ার মহন্ত রামদাস। 

এখান থেকে স্পষ্ট হয়ে যাই ভাইরাল ছবিটি আফ্রিকার ঘানার নয়। 

আফ্রিকার ঘানা এলাকায় কি ১৫টি গ্রাম থেকে ৬৮৩২ জন ইসলাম ধর্ম গ্রহন করেছে ? 

এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে আমরা গুগল ও সহ অন্যান্ন সার্চ ইঞ্জিনে প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চ করি। ফলে বিশ্বস্ত কোন প্রতিবেদনেই এই খবরের উল্লেখ পাওয়া যায় না। 

al-itisam.com নামের এক পোর্টালের ২০২০ সালের এক প্রতিবেদনে এই খবরের পুষ্টি করেছেন। 

প্রতিবেদন আর্কাইভ 

তথ্য প্রমানের ভিত্তিতে বলতে পারি বাবরি মসজিদ মামলার শুনানির পর হিন্দু মুসলিম  ভ্রাত্রিত্ববোধের পুরনো ছবিকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে জুড়ে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিস্যান্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। রাম মন্দির ও বাবরি মসজিদ সংক্রান্ত দীর্ঘ মামলার শুনানির পর দুই সম্প্রদায়ের মিলনের ছবিকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে শেয়ার করা হচ্ছে।

Avatar

Title:বাবরি মসজিদ মামলার শুনানির পর হিন্দু-মুসলিম সম্প্রদায়ের মিলনের ছবিকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে জুড়ে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Fact Check By: Nasim A 

Result: Partly False


Leave a Reply

Your email address will not be published.