ভাইরাল কাঁচা বাদাম গানে নাচছে কেরল পুলিশ? জানুন সত্যতা  

False Social

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ভিডিও শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, কাঁচা বাদাম গানে নাচ করছে কেরল পুলিশ। পোস্টের ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ৪ জন পুরুষ ও একজন মহিলা পুলিশের ইউনিফর্ম পরে ভাইরাল কাঁচা বাদাম গানে নাচছে। 

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “কাচা বাদাম” গানে এবার পুলিশ কর্মীদের নাচতে দেখা গেলো, নেট দুনিয়ায় ভাইরাল সেই ভিডিও……. #kachabadam #PoliceDance #viralvideo #Anewsbangla।” 

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। অভিনেতাদের পুলিশের ইউনিফর্ম পরে নাচের ভিডিওকে ভুয়ো দাবির সাথে ভাইরাল করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্ট 

তথ্য যাচাই 

এই দাবির সত্যতা যাচায় করতে আমরা ভিডিওটি ভালো করে পর্যবেক্ষণ করি। ভিডিওর বাম পাশে একটি হোর্ডিং দেখতে পাওয়া যায় যার ওপরে লেখা রয়েছে হোটেল ডিউল্যান্ড। গুগল সার্চের মাধ্যমে জানতে পারি এই হোটেলটি কেরলর কোচিতে অবস্থিত। 

ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো হোটেল ডিউল্যান্ডের সাথে যোগাযোগ করে এবং হোটেল কর্মী অনুজা-এর সাথে কথা বলে। তিনি আমাদের জানান, “ভিডিওতে যারা নাচছেন তারা প্রকৃত পুলিশ অফিসার নন। তারা সবাই অভিনেতা। মার্চের প্রথম সপ্তাহে ‘রাক্ষসী’ নামের একটি ছবির শুটিংয়ে তারা এখানে এসেছিলেন।”

আমরা কেরল রাজ্য পুলিশ মিডিয়া সেন্টারের ডেপুটি ডিরেক্টর প্রমোদ কুমারের সাথে যোগাযোগ করি। তিনি আমাদের স্পষ্ট করেন যে  ভিডিওতে যারা নাচছেন তারা কেরলর পুলিশ অফিসার নন। ভাইরাল দাবি মিথ্যা। 

গুগল প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে জানতে পারি ’রাক্ষসী’ হল মালায়লাম ভাষার একটি অ্যাকশন ছবি। এই ছবির শুটিং শুরু হয়েছিল ২০২২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারী তারিখ থেকে। প্রীতি গোস্বামী হল এই ছবির মুখ্য অভিনেত্রী। 

অভিনেত্রী প্রীতি গোস্বামীর ইন্সতাগ্রাম প্রোফাইলে এই ভাইরাল ভিডিও খুঁজে পাই। ৮ মার্চ তারিখে এই ভিডিও পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী এবং ক্যাপশনে লিখেছেন, “কাজ যাই হোক, প্রতিটি কাজ উপভোগ করার, আমাদেরও অধিকার আছে।”

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। অভিনেতাদের পুলিশের ইউনিফর্ম পরে নাচের ভিডিওকে ভুয়ো দাবির সাথে ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:ভাইরাল কাঁচা বাদাম গানে নাচছে কেরল পুলিশ? জানুন সত্যতা

Fact Check By: Nasim A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.