প্রয়াত তৃণমূল নেতা নান্টু প্রধানের মায়ের নামে নির্মিত বিএড কলেজের ছবিকে তার বাড়ি দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

False Political

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি পোস্টে একটি ভবনের ছবি শেয়ার করে সেটিকে তৃণমূল নেতা নান্টু প্রধানের বাড়ি বলে দাবি করা হচ্ছে। ছবিতে একটি বৃহৎ বিল্ডিং দেখা যাচ্ছে যার সামলে একটি সুন্দর জলাশয় রয়েছে। পোস্টের ছবির ওপরেই লেখা রয়েছে, “ভবনটি হল ভগবানপুরের মোবারকপুরের তৃণমূল নেতা নান্টু প্রধানের বাড়ি।” পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “কি উন্নয়ন মাইরি তোলামূল ন্যাতা নান্টু প্রধানের ছোট্ট কুঁড়েঘর 😆😆😆😆।”     

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের মাধ্যমে করা দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। নান্টু প্রধানের মায়ের নামে নির্মিত বিএড কলেজ ‘আশালতা টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউট’-এর ছবিকে তার বাড়ি দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।  

ফেসবুক পোস্ট আর্কাইভ 

কে এই নান্টু প্রধান?

২০০৩ সালের পঞ্চায়েত ভোটে নান্টু প্রধান পূর্ব মেদিনীপুরের জেলার ভগবানপুর অঞ্চলের প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হন। ২০১৩ সাল পর্যন্ত পদ ধরে রাখেন তিনি। বিভিন্ন বেআইনি এবং অসামাজিক কাজের সাথে যুক্ত থাকার একাধিক অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে। স্থানীয়দের মতে, নান্টু এলাকার ডন ছিলেন, তার অনুমতি ছাড়া কেউ এলাকার প্রবেশ করার সাহস পেত না। চাষজমিতে নোনাজল ঢুকিয়ে ভেড়ি বানানোর অভিযোগ ছিল নান্টুর বিরুদ্ধে এবং এই বিষয়কে কেন্দ্র করেই অনেকের সাথে তার সংঘর্ষ বাঁধে। এরপর ২০১৮ পঞ্চায়েত ভোটের আগে নান্টু প্রধান খুন হন এবং জলাজমি থেকে তার রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার হয়। 

তথ্য যাচাই

এই দাবির সত্যতা যাচাই করতে আমরা ছবিটিকে গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে যথাযথ কোনও তথ্য পাওয়া যায় না। এরপর পোস্টের ছবিটিকে ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করে দেখতে পাই ভবনটির গায়ে লেখা রয়েছে “D El Ed Section” এবং “Ashalata Teachers Training Institute”। এই সূত্র ধরে প্রাসঙ্গিক কিওয়ার্ড সার্চ করে সংবাদপত্র ‘আনন্দবাজার পত্রিকার’ ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, তারিখের একটি প্রতিবেদনে এর অনুসন্ধান পাওয়া যাওয়া। প্রতিবেদনটি পড়ে জানতে পারি, নান্টু প্রধান মৃত্যুর আগে তার মায়ের নামে একটি বিএড কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন। ভাইরাল ছবিটি যে ভবনটি দেখা যাচ্ছে সেটি আসলে এই বিএড কলেজের ছবি, নান্টুর বাড়ির নয়। 

প্রতিবেদন আর্কাইভ 

আরও জানা যায়, নান্টু প্রধান নির্মিত এই কলেজের নাম ‘আশালতা টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউট’। নান্টুর মায়ের নাম ছিল আশালতা। 

এই কলেজের ওয়েবসাইটে থেকে জানতে পারি, নান্টু প্রধান এই প্রশিক্ষণ কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেছেন। এছাড়া, কলেজের কিছু ছবি দেখতে পাই যা ভাইরাল ছবির সাথে হুবহু মিলে যায়। 

ভগবানপুরের অবস্থিত এই বিএড কলেজের ছবি গুগল ম্যাপসে সহজে পেয়ে যাই। এই লোকেশনের ফোটোজ সেকশনে এই আশালতা কলেজের একাধিক ছবি দেখতে পাই। ভবনের সামনে থাকা জলাশয়ের ছবিও এখানে দেখতে পাওয়া যায়।    

গুগল ম্যাপসে থাকা অন্য ছবি গুলো দেখতে ক্লিক করুন এখানে। 

নীচে ভাইরাল ছবি ও আসল ছবির তুলনা দেওয়া হল।  

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। নান্টু প্রধানের মায়ের নামে নির্মিত বিএড কলেজ ‘আশালতা টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউট’-এর ছবিকে তার বাড়ি দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:প্রয়াত তৃণমূল নেতা নান্টু প্রধানের মায়ের নামে নির্মিত বিএড কলেজের ছবিকে তার বাড়ি দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.