ব্যখা প্রতিবেদনঃ মোদি সরকারের চার বছরের রাজত্বে ব্যাংক জালিয়াতি ৭৭,৫২১ কোটি

Political

116885215_673838043220435_7985740831737663179_n.jpg

এডিট করা খবরের প্রতিবেদনের ছবি শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, মোদির চার বছরে লুঠ ৭৭,৫২১ কোটি টাকা। পোস্টের এই ছবির ওপরে এডিট করা আরও লেখা রয়েছে, ‘এটা আমাদের দেওয়া তথ্য নয়, খোদ আরবিআই এর রিপোর্ট। অর্থাৎ, সবমিলিয়ে মানে দাঁড়াচ্ছে, আরবিআই-এর কোনও এক রিপোর্ট অনুযায়ী মোদী সরকার চার বছরে ব্যাংকের প্রায় ৭৭ হাজার কোটি জালিয়াতি করে লুঠ করেছে। 

ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো তথ্য যাচাই করে দেখতে পেয়েছে এই দাবি বিভ্রান্তিকর। 

download (11).png
ফেসবুক আর্কাইভ

ব্যাখ্যা

ছবিতে দেওয়া প্রতিবেদন ভালো করে লক্ষ্য করে দেখতে পাই, শিরোনামের ওপরের বাক্যে ব্যবহার করা ফন্ট নিচের বাক্যের ফন্টের চেয়ে ভিন্ন এবং দুটির আকারেও পার্থক্য রয়েছে। ছবির অস্পষ্টতার কারনে প্রতবেদনে কী লেখা আছে তা পড়া সম্ভব হয়না কিন্তু ডেটলাইনের যায়গার ২৭মে লেখা রয়েছে তা বোঝা যায়। 

প্রতিবেদনের শিরোনাম থেকে শব্দ নিয়ে গুগলে কিওয়ার্ড সার্চ করে পিপলস রিপোর্টার নামে জনৈক বাংলা পোর্টালের ২০১৮ সালের ২৮ মে-এর একটি প্রতিবেদনের (আর্কাইভ) শিরোনামে দেখতে পাই, বিজেপি সরকারের চার বছরে ব্যাংকে ঋণ জালিয়াতি ৭৭,৫২১ কোটি, জানালো আর বি আই। এই রিপোর্টটি থেকে আরও জানা যায়, “একটি RTI-এর উত্তরে সম্প্রতি রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে গত চার বছরে (২০১৪-২০১৮) পাবলিক সেক্টর ব্যাঙ্ক, বিদেশী ব্যাঙ্ক, বিভিন্ন অর্থনৈতিক সংস্থা, স্থানীয় ব্যাঙ্ক প্রভৃতি সমস্ত ক্ষেত্রে মোট ৭৭,৫২১ কোটি টাকার ঋণ জালিয়াতি হয়েছে।“

download (12).png

প্রতিবেদন থেকে আরও কিছু শব্দ নিয়ে কিওয়ার্ড সার্চ করে ন্যাশনাল হেরার্ল্ড নামে একটি ইংরেজি খবরের কাগজ আরবিআই-এর এই রিপোর্ট নিয়ে আরও বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়। ২০১৮ সালের ২৫ মে-এর একটি প্রতিবেদন (আর্কাইভ) অনুযায়ী,
“প্রসেনজিত বোস নামে একজন অর্থনীতিবিদের আরটিআই আবেদনের উত্তরে আরবিআই-এর তরফে জানানো হয়েছে, গত চার বছরে মোদী সরকারের সময়ে ব্যাঙ্কে ৭৭,৫২১ কোটি টাকার ঋণ জালিয়াতি হয়েছে, যা পূর্বতন UPA-2 সরকারের সময়ের তুলনায় ৫৫,০০০ কোটি টাকা বেশী।“ 

এই প্রতিবেদনে আরবিআই এর গত দশ বছরের রিপোর্টের ছবিও পাওয়া যায়।

nationalherald_2018-05_fb40eb5a-1890-47d7-bbb5-9e167df91e25_Loan_Frauds.jpg

এই রিপোর্ট অনুযায়ী, “রিজার্ভ ব্যাঙ্ক থেকে RTI এর উত্তরে জানানো হয়েছে, গত চার বছরে  পাবলিক সেক্টর ব্যাঙ্ক, বিদেশী ব্যাঙ্ক, বিভিন্ন অর্থনৈতিক সংস্থা, স্থানীয় ব্যাঙ্ক প্রভৃতি সমস্ত ক্ষেত্রে মোট ৭৭,৫২১ কোটি টাকার ঋণ জালিয়াতি হয়েছে এবং ৯,১৯৩ টি মামলা দায়ের হয়েছে এ নিয়ে। গত ২০০৯ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত পাঁচ বছরে UPA-2 এর সময়ে ঋণ জালিয়াতি হয়েছিলো ২২,৪৪১ কোটি টাকা। মামলা দায়ের হয়েছিলো ১০,৬৫২ টি।“ 

অর্থাৎ, মোদি সরকারের আমলে মোট ৭৭ হাজার কোটি টাকার বেশি ব্যাংক জালিয়াতি হয়েছে। মোদি সরকার লুঠ করেনি। পোস্টে দেওয়া প্রতিবেদনটিকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হচ্ছে। 

নিষ্কর্ষঃ একটি আরটিআই আবেদনের উত্তরে দেওয়া রিজার্ভ ব্যাংকের দেওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, সরকারের আমলে মোট ৭৭ হাজার কোটি টাকার বেশি ব্যাংক জালিয়াতি হয়েছে। মোদি সরকার নিজে লুঠ করেনি।

Title:ব্যখা প্রতিবেদনঃ মোদি সরকারের চার বছরের রাজত্বে ব্যাংক জালিয়াতি ৭৭,৫২১ কোটি

Fact Check By: Rahul A 

Result: Explainer


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *