পুরনো অপ্রাসঙ্গিক ছবিকে মাহিন্দা রাজাপক্ষের ধ্বংসপ্রাপ্ত মূর্তি দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

International Partly False

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পোস্ট শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, মাহিন্দা রাজাপক্ষের পূর্বপুরুষের মূর্তি ভেঙে ফেলা হল। পোস্টে দেখা যাচ্ছে একটি মূর্তি মাটির ওপরে পড়ে রয়েছে। দেখে মনে হচ্ছে মূর্তিটিকে ভাঙা হয়েছে। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “শ্রীলঙ্কার পতিত প্রধানমন্ত্রী রাজাপাকসের শাসনামলে নির্মিত তার পূর্ব পুরুষের মুর্তিগুলো বিক্ষুব্ধ জনতা গুড়িয়ে দিয়েছে। এমন দৃশ্য বাংলাদেশেও দেখা যাবে অচিরেই।” 

তথ্য যাচাই করে আমরা দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভুয়ো এবং বিভ্রান্তিকর। পুরনো একটি অপ্রাসঙ্গিক ঘটনাকে শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক দুরবস্থা পরবর্তী ঘটনা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্টআর্কাইভ

ভারতের প্রতিবেশী দেশ শ্রীলঙ্কা বর্তমানে ভহাবহ অর্থনৈতিক দুরবস্থার মোকাবিলা করছে। জিনিসপত্রের দাম এত বেড়ে গিয়েছে যে মানুষের সাধারণ জীবনযাপনও দায় হয়ে পড়েছে। দেশের এই পরিস্থিতি জন্য সরকারকে দায়ী জনগণ রাস্তায় নামে। দেশজুড়ে শুরু হয় বিক্ষোভ এবং কারফিউ। বাধ্য হয়ে প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দ্রা রাজাপক্ষে এবং তার সাংসদরা পদত্যাগ করে। বিস্তারিত পড়ুন। 

তথ্য যাচাই

এই দাবির সত্যতা যাচাই করতে প্রথমে আমরা ভাইরাল ছবিটিকে গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে একাধিক ওয়েবসাইটে এই ছবির অনুসন্ধান পাওয়া যায়। ২০১৩ সালের একটি কৌতুক এবং মিম ওয়েবসাইটে এই ছবিটি শেয়ার করা হয়।

একাধিক ওয়েবসাইটে একই ছবি পাওয়া যায়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই ছবিটিকে কৌতুক বা মিম আকারে শেয়ার করা হয়েছে। এরপর potsreotizm.livejournal.com নামে একটি ব্লগ ওয়েবসাইটে এই ছবি দেখতে পাওয়া যায়। ২০১২ সালের এই প্রতিবেদনের শীর্ষকে রাশিয়ান ভাষায় লেখা রয়েছে, “টাভারে পুতিনের একটি মূর্তি ধসে পড়ছে।” 

এর থেকে স্পষ্ট হয়ে যায় এটি শ্রীলঙ্কার ঘটনা নয়। এই ছবিটি ২০১২ সাল থেকে ইন্টারনেটে রয়েছে এবং শ্রীলঙ্কান অর্থনৈতিক টানাপোড়ন ২০২২ সালে শুরু হয়। 

সংবাদমাধ্যম ‘টাইমস নাও’-এর একটি ভিডিও উপস্থাপনা থেকে জানতে পারি, শ্রীলঙ্কায় অর্থনৈতিক টানাপোড়নের বিক্ষোভে ক্ষিপ্ত জনগন প্রাক্তন মাহিন্দা রাজাপক্ষের বাবা এবং প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ডিএ রাজাপক্ষের মূর্তি ভেঙে ফেলা হয়। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একটি হলুদ রঙের মূর্তি মাটিতে ফেলা হচ্ছে। 

উপরোক্ত প্রমাণ থেকে স্পষ্ট হয়ে যায় পুরনো একটি অপ্রাসঙ্গিক ছবিকে শ্রীলঙ্কার ঘটনা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট শেয়ার করা হচ্ছে। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিস্যান্ডো সিদ্ধান্তে  এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। পুরনো একটি অপ্রাসঙ্গিক ঘটনাকে শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক দুরবস্থা পরবর্তী ঘটনা দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:পুরনো অপ্রাসঙ্গিক ছবিকে মাহিন্দা রাজাপক্ষের ধ্বংসপ্রাপ্ত মূর্তি দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Fact Check By: Rahul A 

Result: Partly False


Leave a Reply

Your email address will not be published.