পুরনো অপ্রাসঙ্গিক ভিডিওকে রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় বেদমন্ত্র পাঠের দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল 

False International

সম্প্রতি সামজিক মাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও শেয়ার করে সেটিকে রানি দ্বিতীয় এলিজাবথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় বেদমন্ত্র পাঠ করার ভিডিও বলে দাবি করা হচ্ছে। পোস্টের ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একদল ছাত্র স্টেজে একসাথে শ্লোকা পাঠ করছে। 

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা হয়েছে “ব্রিটেনেও রাণী এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়ায় উচ্চারিত হলো অপৌরুষেয় বেদের পবিত্র বেদমন্ত্র গত ১১ সেপ্টেম্বর, ব্রিটেনেও রাণী এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়ায় উচ্চারিত হলো অপৌরুষেয় বেদের পবিত্র বেদমন্ত্র ! …………………………“ 

তথ্য যাচাই করে আমরা দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভুয়ো এবং বিভ্রান্তিকর। কমনওয়েলথ গেমস ২০১০ উপলক্ষ্যে সেন্ট জোন্স স্কুলের শিক্ষার্থীদের দ্বারা ভারতীয় সংস্কৃতি উপস্থাপনা করার পুরনো ভিডিওকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে ভাইরাল করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্ট 

তথ্য যাচাই

ভিডিওটি পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে ভিডিওর ১৪ সেকেন্ডের সময়ে ’St. james school choir delhi 2010’ ভেসে ওঠা লেখা ও WildFilmsIndia নামের পোর্টাল লিংকের ওয়াটারমার্ক এই দুটোকে সুত্র ধরে গুগল সার্চের মাধ্যমেই খুব সহজেই এই ভিডিও আসল উৎস পেয়ে যায়। WildFilmsIndia নামের ইউটিউব চ্যানেলে হুবহু এই ভিডিওটি ২০১৯ সালের ২২ মে তারিখে আপলোড করা হয়েছে এবং শীর্ষকে লেখা হয়েছে “বাকিংহাম প্যালেসে সেন্ট জেমস স্কুলের ছাত্ররা শ্লোক আবৃত্তি করছে”। ভিডিওর বর্ণনায় এটিকে কমনওয়েলথ গেমস ২০১০ উপলক্ষ্যে কুইন বাটন রিলে অনুষ্ঠানের বলে জানানো হয়েছে। 

এবিসি নিউজ (অস্ট্রেলিয়া)র ইউটিউব চ্যানেলেও এই ভিডিও এক তথ্য সহকারে আপলোড করা হয়েছে। সাথে জানানো হয়, রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাতিল ও রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ কমনওয়েলথ গেমস উপলক্ষ্যে বাটন রিলে রেস-এর শুভ সুচনা করেছিলেন। 

ভাইরাল এই ভিডিওটি XIX Commonwealth Games 2010 Delhi-এর ফেসবুক পেজ থেকে ২৫ নভেম্বর, ২০০৯, তারিখে পোস্ট করা হয়েছে এবং ক্যাপশনে লেখা রয়েছে “কুইন্স বাটন রিলে ২০১০,দিল্লী ২৯ অক্টোবর,২০০৯, তারিখে লন্ডনের বাকিংহাম প্যালেসে চালু করা হয়েছিল, যখন তার মহিমান্বিত বার্তা সম্বলিত বাটনটি অভিনব বিন্দ্রার হাতে অর্পণ করা হয়েছিল, যা হাজার হাজার ব্যাটন বহনকারীদের মধ্যে প্রথম। কমনওয়েলথকে একত্রিত করে, কুইন্স ব্যাটন রিলে ২০১০, দিল্লি হল একটি উত্তেজনাপূর্ণ উদযাপন যা ভারতকে বিশ্বের সামনে তুলে ধরে। কমনওয়েলথের ৭১টি দেশকে বাটন রিলে করা পুরো কমনওয়েলথের জন্য গেমসের উত্তেজনায় অংশ নেওয়ার একটি অনন্য সুযোগ প্রদান করে।“ 

প্রসঙ্গত বলে রাখা ভালো, কমনওয়েলথ গেমস ২০১০-এর শুভারম্ভ হয়েছিল ইংল্যান্ড রানীর বাটন রিলে চালু করার মাধ্যমে, যেখানে ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাটিল এই অনুষ্ঠানে যোগদান করেছিলেন। একদল ব্রিটিশ ছাত্র প্রাচীন ঋগ্বেদের সংস্কৃত শ্লোক উচ্চারণ করে উদযাপনে যোগ দিয়েছিল। পড়ুন 

উপরোক্ত তথ্যের ভিত্তিতে স্পষ্ট হয়, ভাইরাল ভিডিওটি রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় বেদমন্ত্র পাঠ করার নয়, কমনওয়েলথ গেমস ২০১০ উপলক্ষ্যে বার্কিংহাম সেন্ট জেমস স্কুলে ব্রিটিশ ছাত্রদের সংস্কৃত শ্লোক পাঠের ভিডিও। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিস্যান্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুয়ো ও ভিত্তিহীন। কমনওয়েলথ গেমস ২০১০ উপলক্ষ্যে সেন্ট জোন্স স্কুলের শিক্ষার্থীদের দ্বারা ভারতীয় সংস্কৃতি উপস্থাপনা করার পুরনো ভিডিওকে বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:পুরনো অপ্রাসঙ্গিক ভিডিওকে রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় বেদমন্ত্র পাঠের দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Fact Check By: Nasim A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.