পাকিস্তানের ইসলামাবাদে বিক্ষোভকারি এক মহিলার কান্নার ভিডিওকে ইয়াসিন মালিকের স্ত্রী দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল 

False Social

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ভিডিও শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, ইয়াসিন মালিকের সাজা ঘোষণার পর তার স্ত্রী তীব্র কান্না করছে। পোস্টের ভিডিওতে একজন মহিলাকে কান্না করতে দেখা যাচ্ছে। 

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “ভারতীয় আদালতে ইয়াসিন মালিকের সাজা ঘোষণার পর পাকিস্তানে বসে ভারতকে অভিশাপ দিচ্ছে কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলনের নেতা ইয়াসিন মালিকের স্ত্রী এবং এর কান্না দেখে আজ একজন প্রকৃত ভারতবাসী হিসেবে হৃদয়ে প্রশান্তি লাভ করলাম😊😊।”    

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। পাকিস্তানের ইসলামাবাদে আয়োজিত পদযাত্রায় পুলিশের নির্মম আচরনের প্রতি ক্ষুব্ধ মহিলার কান্নার ভিডিওকে ইয়াসিন মালিকের স্ত্রী দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

ফেসবুক পোস্ট 

উল্লেখ্য, কাশ্মীর উপত্যকায় সন্ত্রাসী ও বিচ্ছিন্নতাবাদী কার্যকলাপ চালানোর জন্য তহবিল সংগ্রহ ও গ্রহণ করার অভিযোগে ইয়াসিন মালিককে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ঘোষণা করে দিল্লি হাইকোর্ট। 

তথ্য যাচাই 

এই দাবির সত্যতা যাচায় করতে আমরা ভিডিওটিকে ইনভিড টুলের মাধ্যমে কি ফ্রেমে ভাগ করে গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে, পাকিস্তানের রাজনৈতিক সংস্থা পিটিআই ইসলামাবাদ’-এর অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে ভাইরাল এই ভিডিও খুঁজে পাই। চলতি মাসের ২৬ তারিখে পোস্ট করা এই ভিডিওর ক্যাপশনের মাধ্যমে জানানো হয়, “ইসলামাবাদের ডি-চকে ভারী গোলাগুলির পর একজন মহিলা কাঁদছেন।”

ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো পাকিস্তানের সংবাদ সংস্থা ’জাং মিডিয়া গ্রুপের’ সাংবাদিক তৌসিফ এর সাথে কথা বলেন। তিনি আমাদের জানান, “এই ভিডিওটি সাম্প্রতিক পিটিআই (পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টি) বর্তমান সরকার (পাকিস্তান মুসলিম লিগ) বিরুদ্ধে  পদযাত্রা ডাক দিয়েছিলেন। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের অপেক্ষায় সেখানে ভিড় জমান মানুষ।  বিক্ষোভকারীদের এই ভিড় সরাতে পুলিশ প্রায় রাতভর জনগণের দিকে কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করেছে। ভাইরাল এই ভিডিওটি ইসলামাবাদের যেখানেও কাঁদানে গ্যাস ছোড়া হয়েছিল এবং ভিডিওতে দেখতে নারী বিক্ষোভকারীদের একজন। ওই নারীর ইয়াসিন মালিকের সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক নেই।” 

তৌসিফকে এই পদযাত্রার ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি আমাদের বলেন, “ইমরান খান দেশে লং মার্চের ঘোষণা করেন যা শুরু হয় ২৫ মে থেকে। এই কারণে ইসলামাবাদের ডি চকে তার বিপুল সংখ্যক সমর্থক জড়ো হয়। সেখানে তারা ইমরান খানের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এরপর সরকার পুরো এলাকা ব্যারিকেড করে দেয় এবং বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষ শুরু হয়। জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ লাঠিপেটা, রাবার বুলেট ও ​​কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করে।”

এখানে বলে রাখা ভালো, পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের সরকারের বিরুদ্ধে একটি পদযাত্রার ডাক দিয়েছেন। চলতি বছরের এপ্রিল মাসে ইমরান খানকে অনাস্থা প্রস্তাবের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে অপসারণ করা হয়েছিল, যাকে তিনি একটি ষড়যন্ত্র বলে অভিহিত করেছিলেন। এ কারণে ইমরান খান বর্তমান সরকারকে বরখাস্ত করে পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছেন। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিস্যান্ডো সিদ্ধান্তে  এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। পাকিস্তানের ইসলামাবাদে আয়োজিত পদযাত্রায় পুলিশের নির্মম আচরনের প্রতি ক্ষুব্ধ মহিলার কান্নার ভিডিওকে ইয়াসিন মালিকের স্ত্রী দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:পাকিস্তানের ইসলামাবাদে বিক্ষোভকারি এক মহিলার কান্নার ভিডিওকে ইয়াসিন মালিকের স্ত্রী দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.