১৮১৮ সালে সত্যিই কি রাম-সীতার ছবিযুক্ত মুদ্রার প্রচলন ছিল? জানুন সত্যতা

False Social

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, ১৮১৮ সালে ইংরেজ আমলে ভারতীয় মুদ্রায় রাম-সীতার ছবি ছিল। পোস্টের ছবিতে দেখা একটি মুদ্রা রয়েছে যার নিচে ১৮১৮ লেখা রয়েছে। মুদ্রার ওপরে রাম, লক্ষণ, সীতা এবং হনুমানের ছবি রয়েছে। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, তৎকালীন আমলের মুদ্রা।🥰😍 সনাতন সত্য, সনাতন আদী, সনাতন শ্রেষ্ঠ ধর্ম। 🌿🌺। 

তথ্য যাচাই করে আমরা দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভুয়ো এবং বিভ্রান্তিকর। ইংরেজ আমলে ১৮১৮ সালে রাম-সীতার ছবিযুক্ত কোনও মুদ্রার প্রচলন ছিল না। 

ফেসবুক পোস্ট আর্কাইভ

তথ্য যাচাই

এই দাবির সত্যতা যাচাই করতে আমরা প্রথমে এই ছবিটিকে গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে ফ্লিপকার্ট, স্ন্যাপডিল এবং অ্যামাজন জাতীয় একাধিক ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মে এই ১৮১৮ লেখা ও রাম-সীতার ছবিযুক্ত মুদ্রাটি দেখতে পাওয়া যায়। নিচে স্ন্যাপডিলে বিক্রির জন্য তালিকাভুক্ত একটি মুদ্রার স্ক্রিনশট দেওয়া হল। 

এরপর কিওয়ার্ড সার্চ করে খুঁজে দেখার চেষ্টা করে ১৮১৮ সালে সত্যিই এই মুদ্রার প্রচলন ছিল। ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া-এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে বিভিন্ন যুগে ব্যবহৃত মুদ্রা বিষয় একতি ব্লগ প্রতিবেদন দেখতে পাই। এই প্রতিবেদনে বিভিন্ন যুগে ব্যবহৃত মুদ্রার নাম সহ ছবি দেওয়া রয়েছে। ইংরেজ আমলে বা তার রাম-সীতার ছবিযুক্ত মুদ্রা ব্যবহারের কোনও তথ্য পাওয়া যায় না। ব্রিটিশ আমলে ব্যবহৃত সমস্ত মুদ্রাগুলি স্ক্রিনশিট নিচে দেওয়া হল।   

ব্রিটিশ আমলের প্রাচীন মুদ্রাঃ

উইলিয়াম আইভি (৪) আমলের মুদ্রাঃ

 রানী ভিক্টোরিয়া আমলের মুদ্রাঃ 

এডওয়ার্ড ভিআইআই (৭) আমলের মুদ্রাঃ

উপরোক্ত সমস্ত তথ্য এবং প্রমাণ থেকে স্পষ্ট হয়ে ১৮১৮ সালে হিন্দু ধর্মের ভগবান রাম-সীতার ছবিযুক্ত মিদ্রা প্রচলনের খবরটি ভুয়ো। এর আগেও একই রকমের দাবির সাথে অন্য মুদ্রা ছবি ভাইরাল হয়। ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো তার সত্যতা যাচাই করে ওই দাবিকে ভুয়ো প্রমাণ করে। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। ইংরেজ আমলে ১৮১৮ সালে রাম-সীতার ছবিযুক্ত কোনও মুদ্রার প্রচলন ছিল না।

Avatar

Title:১৮১৮ সালে সত্যিই কি রাম-সীতার ছবিযুক্ত মুদ্রার প্রচলন ছিল? জানুন সত্যতা

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.