না, শক্তিমান অভিনেতা মুকেশ খান্না করোনায় মারা যাননি

Coronavirus False

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, শক্তিমান অভিনেতা মুকেশ খান্না করোনায় মারা গিয়েছেন। মুকেশ খান্নার ছবি দেওয়া এই পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “শক্তিমান ও করোনার শক্তির কাছে হার মানলো শেষমেশ। অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। 😭😭😭 আমাদের সবার প্রিয় ছোটবেলার হিরো শক্তিমান অভিনেতা মহাভারতের ভীষ্ম মুকেশ খান্নার জীবনাবসান। করোনার সাথে তিন দিন লড়াই করে আজ লীলাবতী হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এই মহান অভিনেতার আত্মার শান্তি প্রার্থনা করছি। 😭😭👏একটা প্রজন্ম শেষ। ওনার আত্মার শান্তি কামনা করছি”। 

উল্লেখ্য, মুকেশ খান্না ৯০-এর দশকে খুব জনপ্রিয় ছিলেন। তার বিখ্যাত চরিত্র শক্তিমান এবং মহাভারতের পিতামহ ভীষ্ম দর্শকের মনে আজও অমর হয়ে রয়েছে। 

তথ্য যাচাই করে আমরা দেখতে পেয়েছি মুকেশ খান্নার মৃত্যুর খবরটি ভুয়ো। তিনি বেঁচে রয়েছেন এমনটা তিনি নিজে জানিয়েছেন। 

Mukesh Khanna Died Fact Check.png
ফেসবুক আর্কাইভ

তথ্য যাচাই

এই দাবির সত্যতা যাচাই করতে গুগলে প্রাসঙ্গিক কিওয়ার্ড সার্চ করি। ফলাফলে অভিনেতার মৃত্যুর কোনও খবর পাওয়া যায় না। এত জনপ্রিয় একজন অভিনেতার মৃত্যু হলে প্রায় সব সংবাদমাধ্যমই এই মর্মে খবর প্রকাশ করত কিন্তু এমন কিছুই দেখতে পাওয়া যায় না। 

এরপর দেখতে পাই শক্তিমান তার টুইটার হ্যান্ডেল থেকে ১১ মে একটি ভিডিও শেয়ার করে স্পষ্ট করেন তিনি বেঁচে আছেন। তিনি বলেন, সোশ্যাল মিডিয়ার এই এক অসুবিধা। যারা আমার ব্যাপারে এজাতীয় খবর ছড়িয়েছে আমি তাদের নিন্দা করছি। আপনাদের দয়া এবং প্রার্থনায় আমি বেঁচে আছি এবং সুস্থ আছি। 

এছাড়া, অভিনেতা তার ইন্সতাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে ১২ মে একটি পোস্ট শেয়ার করে জানান তার মৃত্যুর খবর মিথ্যা। পোস্টের ক্যাপশনে তিনি লেখেন, “গতকাল আমার মৃত্যুর খবরের সত্যতা জানানোর জন্য কয়েক ঘণ্টা লেগেছে। কিন্তু আমি বুঝতে পারিনি আমরা মাথারে ওপরে এক ভয়ঙ্কর সত্যতা ঘুরে বেড়াচ্ছিল। আজ দিল্লীতে আমরা একমাত্র বড় বোন কমল কাপুরের মৃত্যু হয়েছে। তার মৃত্যুতে আমরা মর্মাহত।…”

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত সত্য নয়। শক্তিমান মুকেশ খান্নার মৃত্যুর খবর ভুয়ো এমনটা অভিনেতা নিজে জানিয়েছেন।

Avatar

Title:না, শক্তিমান অভিনেতা মুকেশ খান্না করোনায় মারা যাননি

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *