সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি জে বি পারদিওয়ালা কংগ্রেসের বিধায়ক ছিলেন না 

False Political

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, নূপুর শর্মার সুপ্রিম কোর্ট পিটিশনের বিচারক জে বি পারদিওয়ালা কংগ্রেস বিধায়ক ছিলেন। 

প্রসঙ্গত, ইসলাম ধর্মের পয়গম্বর হজরত মহম্মদের নামে বিতর্কিত মন্তব্য করায় নূপুর শর্মার নামে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে মামলা দায়ের করা হয়। এই সমস্ত মামলাগুলিকে দিল্লিতে স্থানান্তরিত করার আবেদন জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন করেন প্রাক্তন বিজেপি নেতা। এই পিটিশনের শুনানির সময় নূপুর শর্মাকে ভর্ৎসনা করেন বিচারকের বেঞ্চে থাকা সূর্যকান্ত এবং জে বি পারদিওয়ালা। বিস্তারিত পড়ুন। 

ভাইরাল পোস্টে বিচারক জে বি পারদিওয়ালাকে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি বলে দাবি করা হচ্ছে। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “যাক গিয়ে উল্টো হলে যেন , এইরকম ধমক দেওয়া হয় “কানাইলাল জীর হত্যার জন্যে নুপূর শর্মা দায়ী..!!!! _____সুপ্রিম কোর্টের বিচারক জে বি পারদিওয়ালা (কংগ্রেস এমএলএ ১৮৮৯-৯০) হিন্দু দেব-দেবীর নগ্ন ছবি এঁকেছিলো মকবুল ফিদা হোসেন, সেই ঘটনার পর কি মকবুল ফিদা হোসেনকে ক্ষমা চাওয়ানো‌ হয়েছিল কি? সিদ্দিকী শিব নিয়ে অপমান করেছিল হিন্দুরা সরকারি সম্পত্তি ধ্বংস করে তান্ডব লীলা চালিয়েছিল? যত দোষ হিন্দুনামের নন্দ ঘোষ আর  কংগ্রেস নামক  বিশ্বাসঘাতকতা।”

তথ্য যাচাই করে আমরা দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভুল এবং বিভ্রান্তিকর। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি জে বি পারদিওয়ালা কংগ্রেসের বিধায়ক ছিলেন না। 

ফেসবুক পোস্টআর্কাইভ
ফেসবুক পোস্টআর্কাইভ

তথ্য যাচাই

এই দাবির সত্যতা করতে আমরা কিওয়ার্ড সার্চ দিয়ে শুরু করি। সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইট থেকে জানতে পারি, বিচারক জে বি পারদিওয়ালার পুরো নাম হল জামশেদ বরজোর পারদিওয়ালা। তিনি সুপ্রিম কোর্টের ইতিহাসে তিনি হলে ষষ্ঠ যিনি পার্সি সম্প্রদায় থেকে এসেছেন।

১৯৬৫ সালে মুম্বাই শহরে পারদিওয়ালার জন্ম হয়। ১৯৮৮ সালে তিনি ভালসাডের কেএম মুলজি ল (আইন) কলেজ থেকে আইনের ডিগ্রি সম্পূর্ণ করেন। এরপর তিনি ১৯৯০ সালে গুজরাট হাইকোর্টে অনুশীলন শুরু করেন। ২০০২ সালে তিনি গুজরাট হাইকোর্টে পাবলিক প্রসিকিউটর হিসাবে নিযুক্ত হন। ২০১১ সালে তিনি গুজরাট হাইকোর্টে অতিরিক্ত বিচারক হিসাবে নিযুক্ত হন এবং ২০১৩ সালে স্থায়ী বিচারপতি হন। এরপর ২০২২ সালের ৯মে তাকে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি পদে নিযুক্ত করা হয়। এই ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্যে পারদিওয়ালার কংগ্রেস বিধায়ক হওয়া বা অন্য কোনও রাজনৈতিক দলের সাথে যোগাযোগের কোনও তথ্য পাওয়া যায় না।

জে বি পারদিওয়ালার বাবা কংগ্রেসের বিধায়ক ছিলেন

জে বি পারদিওয়ালার বাবা বুর্জর কাওয়াসজি পারদিওয়ালাও ১৯৫৫ সালে ভালসাদ বারে যোগ দেন। যদিও পরে তিনি কংগ্রেসের হয়ে নির্বাচনে লড়ে বিধায়ক হন। ১ ডিসেম্বর ১৯৯০ থেকে মার্চ ১৯৯০ পর্যন্ত তিনি সপ্তম গুজরাট বিধানসভার স্পিকার হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

বুর্জর কাওয়াসজি পারদিওয়ালা কংগ্রেস পার্টির প্রার্থী হিসাবে ১৯৮৫ সালের গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী হন। নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটেও তার নাম রয়েছে।

উপরোক্ত তথ্য এবং প্রমাণের ভিত্তিতে স্পষ্ট হয়ে যায় সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি জে বি পারদিওয়ালা কংগ্রেসের বিধায়ক ছিলেন না। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি জে বি পারদিওয়ালা কংগ্রেসের বিধায়ক ছিলেন না।

Avatar

Title:সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি জে বি পারদিওয়ালা কংগ্রেসের বিধায়ক ছিলেন না

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.