অর্থনীতি চাঙ্গা ভারতকে ৭৫,০০০ কোটি দিল গুগল, ভুল তথ্য দাবি করে ভাইরাল পোস্ট

Coronavirus False

Thumbnail.png

করোনা পরিস্থিতিতে দেশের ভেঙে পড়া অর্থনীতি চাঙ্গা করতে গুগুলের সিইও ভারতের জন্য ৭৫ হাজার কোটি টাকার অনুদান ঘোষণা করল, এমনটাই ভুল তথ্য দাবি করে সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট ভাইরাল হয়েছে। এই পোস্টের ছবিতে লেখা আছে, “গুগলের CEO সুন্দর পিচাই করোনার জন্য ভারতের অর্থনীতি দুর্বল হয়ে যাওয়ায় ৭৫ হাজার কোটি টাকা দান করলেন।“ ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো তথ্য যাচাই করে দেখতে পেয়েছে এই দাবি ভিত্তিহীন। 

Sundra 1.png
ফেসবুক আর্কাইভ 

তথ্য যাচাইঃ গুগলে কিওয়ার্ড সার্চ করে আমরা একটি প্রতিবেদন (আর্কাইভ) দেখতে পাই।  সেটি পড়ে আমরা জানতে পারি, সোমবার ভারতের জন্য গুগলের (গুগল ফর ইন্ডিয়া) ভিডিয়ো-বৈঠকের মঞ্চে সিইও সুন্দর পিচাইয় ঘোষণা করেছেন, তাঁদের কোম্পানি আগামি ৫-৭ বছরে এদেশে ১০ বিলিয়ন ডলার বা ৭৫ হাজার কোটি টাকা লগ্নি করবে।

Proof 2.png

ইউটিউবে কিওয়ার্ড সার্চ করে গুগলের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যনেলে আমরা সুন্দর পিচাইয়ের ভারতে ৭৫ হাজার কোটি লগ্নির বার্তার ভিডিও খুঁজে পাই। ভিডিওতে তিনি বলেছেন আগামি ৫-৭ বছরে মধ্যে গুগল ফর ইন্ডিয়া প্রোজেক্টের জন্য এদেশে ৭৫ কোটি ঢালবেন তারা। 

ইউটিউব

টুইটারে কিওয়ার্ড সার্চ করে আমরা দেখতে পাই, ভারতে এই লগ্নির কথা ঘোষণা করে টুইটও করেছেন সিইও সুন্দর পিচাই। সেই টুইটে তিনি জানিয়েছেন, “আজ আমরা গুগল ফর ইন্ডিয়া প্রোজেক্টের দ্বারা ভারতের ডিজিটাল অর্থনীতিকে ত্বরান্বিত করতে নতুন করে 10 বিলিয়ন ডলার লগ্নি করার কথা ঘোষণা করেছি।……” এই টুইটে বা তার ভিডিও বার্তায় তিনি কোথাও একবারও বলেননি যে করোনাভাইরাসের ফলে পড়ে যাওয়া ভারতের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে এই ৭৫ হাজার কোটি টাকা দান করা হচ্ছে। 

আর্কাইভ

ফলাফলঃ তথ্য যাচাই করার পর ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে যে উপরোক্ত দাবিটি ভুল। গুগলের সিইও সুন্দর পিচাই করোনার জন্য ভারতের অর্থনীতি দুর্বল হয়ে যাওয়ায় ৭৫ হাজার কোটি টাকা দান করেননি। গুগল ফল ইন্ডিয়া প্রোজেক্টের জন্য তাঁদের কোম্পানি ভারতে ১০ বিলিয়ন ডলার বা প্রায় ৭৫ হাজার কোটি টাকা আগামি ৫-৭ বছরে বিনিয়োগ করবে বলে ঘোষণা করেছেন তিনি।  

Avatar

Title:অর্থনীতি চাঙ্গা ভারতকে ৭৫,০০০ কোটি দিল গুগল, ভুল তথ্য দাবি করে ভাইরাল পোস্ট

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.