২০১৮ সালের উর্ত্তীন মাধ্যমিকের ছাত্রের মার্কশিটকে এবছরের বলে দাবি করা হচ্ছে

False Social

download (3).png

পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদের ফল প্রকাশের পর ২০১৮ সালে উর্ত্তীন একজন ছাত্র ও তার মাধ্যমিকের মার্কশিটের ছবি ফেসবুকে দাবানলের মতো ভাইরাল হয়েছে। এই ছবি শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে ছেলেটি স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) সদস্য এবং অনেক প্রতিকূলতার মধ্যে থেকেও এই ছেলেটি এবছরে মাধ্যমিক পরীক্ষায় ভালো নাম্বার নিয়ে পাশ করেছে। এই দুটির ছবিতে একটিতে দেখা যাচ্ছে ছেলেটি জুতো সেলাই করেছে ও অন্যটিতে মার্কশিট দেওয়া আছে এবং পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে,
“এই প্রকারের পোস্ট প্রায়শই চাপা পড়ে যায় বা লোক ইগনোর করে দেয়…. পরিচিত হোন সংঘের স্বয়ংসেবক পশ্চিমবঙ্গের #সঞ্জয়_রবিদাস এর সাথে… যে এবার WBBSE পরীক্ষায় A grade প্রাপ্ত করেছে। টিউশন-কোচিং করে AC রুমে বসে নয়, বরং তপ্ত রৌদ্র, বৃষ্টিতে রাস্তার পাশে জুতো সেলাই করে। উল্লেখ থাকে যে…. তার বাবা জীবিত নেই, তাই পরিবার প্রতিপালনেও তার সাহায্য করতে হয়।“ 

Sanjay photo 1.png
ফেসবুক আর্কাইভ 

ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো তথ্য যাচাই করে জানতে পেরেছে এই ছেলেটি এবছর মাধ্যমিক পাস করেনি ২০১৮ সালে করেছে। 

তথ্য যাচাইঃ
এবছরে মাধ্যমিকের ফল প্রকাশের সময়েই মধ্যশিক্ষা পর্ষদ জানিয়েছিল আপাতত অনলাইনে ফল প্রকাশ করা হবে। মার্কশিট পাওয়া যাবে ২২ ও ২৩ তারিখ থেকে। তাতেই স্পষ্ট হয়ে যায় ভাইরালে এই পোস্টে দেওয়া ছবিগুলি ২০২০ বর্ষের নয়। মার্কশিট দেখে জানতে পারি এটি ২০১৮ শিক্ষাবর্ষের ফলাফল পত্র। 

PicsArt_07-16-01.47.45.jpg

পোস্টে দেওয়া ছেলেটির নাম, সঞ্জয় রবিদাস, দিয়ে গুগলে কিওয়ার্ড সার্চ করে আমরা ২০১৮ সালের একটি ভিডিও প্রতিবেদন খুঁজে পাই। সেখান থেকে জানা যায় সঞ্জয় নামে এই ছেলেটির বাড়ি মালদা জেলার হরিশচন্দ্রপুরে। বাবা মারা গেছে ছোটোবেলায়। সে নিজে মুচির দোকান চালায় এবং একই সাথে পড়াশুনাও করে। এত প্রতিকূলতার মধ্যে থাকার পরও ২০১৮ সালের মাধ্যমিকে ভালো ফল করায় সবার নজরে পরেছিল সঞ্জয়। 

ফেসবুকে কিওয়ার্ড সার্চ করে আমরা দেখতে পাই ২০১৮ সালে এই দুটি ছবি শেয়ার করা হয়েছিল। ওই পুরনো পোস্টের ক্যাপশনেও ওই একইরকম কথা লেখা। 

Proof.png
ফেসবুক আর্কাইভ 

আমরা সঞ্জয়ে সাথে যোগাযোগ করে জানতে পারি ওই প্রতিবেদনের সমস্ত তথ্যগুলি সঠিক। সে ২০১৮ সালে মাধ্যমিক পাস করেছিল। এবার সে উচ্চ মাধ্যমিক দিয়েছে এবং ১৭ জুলাই তার রেজাল্ট। সে এখনও একই সাথে দোকান চালায় এবং পড়াশুনা করে। পোস্টের দাবি অনুযায়ী তার স্বয়ংসেবক সংঘরে সাথে যোগাযোগের ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করায় সে হেসে বলে, “আমার এখনও ১৮ বছর বয়স হয়নি আমি কী করে রাজনৈতিক দল বা অন্য কোনও দলের সাথে যুক্ত থাকবো।“ সঞ্জয় আরও বলে, দোকান চালাতে গিয়ে সে পড়াশুনার সময়টা ঠিকঠাক পায়না আর বাকি কাজ কী করে করবে।  

ফলাফলঃ তথ্য যাচাই করার পর ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল। সঞ্জয় রবিদাস নামে এই ছেলেটি ২০১৮ সালে মাধ্যমিক পাশ করেছিল এবং এই মার্কশিটটি ওই শিক্ষাবর্ষেরই, ২০২০ সালের নয়। সে এবার উচ্চ মাধ্যমিক দিয়েছে।

Avatar

Title:২০১৮ সালের উর্ত্তীন মাধ্যমিকের ছাত্রের মার্কশিটকে এবছরের বলে দাবি করা হচ্ছে

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.