রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি পুতিনের মেয়ে করোনার ভ্যাকসিন নিলেন, ভুয়ো দাবি করে ছবি ভাইরাল

False International

করোনা রোগীর উপসর্গ হোক কিংবা ভ্যাকসিন, অতিমারি কোভিড নিয়ে ছড়িয়ে পরা ফেক নিউজের শেষ নেই। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া একটি ছবি শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের মেয়ে করোনার ভ্যাকসিন নিচ্ছেন। এই পোস্টে দুটি ছবি শেয়ার করা হয়েছে যেখানে মুখে মাস্ক পরা একটি মেয়ে এবং পিপিই পরা একজনকে দেখা যাচ্ছে। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে,
“অভিনন্দন এবং কুর্নিশ বিশ্বের প্রথম কোরনা ভ্যাকসিন নিয়ে এলো রাশিয়া। সর্ব প্রথম প্রয়োগ করা হলো রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের মেয়ে মারিয়া পুতিন কে। জয় হোক #বিজ্ঞানের জয় হোক #মানব_জাতির”। 

ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো তথ্য যাচাই করে দেখতে পেয়েছে এই দাবি ভুয়ো এবং বিভ্রান্তিকর। 

download (37).png
ফেসবুকআর্কাইভ 

তথ্য যাচাই

ছবিটিকে গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে আরটি (RT) নামে একটি রাশিয়ান সংবাদমাধ্যমের চলতি বছরের ২০ জুলাইয়ের একটি রিপোর্ট থেকে জানতে পারি, ছবির এই মেয়েটি রাশিয়ার তৈরি করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের প্রয়োগের জন্য স্বেচ্ছাসেবক হয়েছিলেন। এই প্রতিবেদন (আর্কাইভ) অনুযায়ী, যে সমস্ত স্বেচ্ছাসেবকদের ওপর করোনা ভাইরাসের প্রয়োগ করা হয়েছিল তাদের মস্কোর ‘বুনদেনকো সেন্ট্রাল মিলিটারি হাসপাতাল’ থেকে ছুটি দেওয়া হয়েছে। সাধারণ জনগন ও মিলিটারি, উভয় ধরনের স্বেছাসেবকের ওপর এই ভ্যাকসিনটি প্রয়োগ করা হয়েছিল। ভ্যাকসিনের প্রয়োগের পর ৪০ দিন তারা ডাক্তারদের নজরাধীন ছিলেন। 

এই প্রতিবেদনে একটি ভিডিও দেওয়া রয়েছে, সেখানেই পোস্টের ছবির মেয়েটিকে দেখা যায়। যদিও এখানে মেয়েটির নাম কোথাও উল্লেখ করা নেই। 

download (39).png
download (38).png

ছবিটিকে আর কয়েকটি সার্চ ইঞ্জিনে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে ইউটিউবে ২৫ জুনের একটি ভিডিও দেখতে পাই যেখানে এই মেয়েটিকে দেখা যায়। রাশিয়ান ভাষায় লেখা ভিডিওর ক্যাপশনটিকে গুগলে ট্রান্সলেট করে জানা যায় সেখানে লেখা রয়েছে, “স্বেচ্ছাসেবক নাতালিয়া”। এতে স্পষ্ট হয়ে যায় যে এই মেয়েটি রাষ্ট্রপতি পুতিনের মেয়ে মারিয়া পুতিন নন। 

download (41).png

রাশিয়ান ভাষায় লেখা এই ক্যাপশনটি দিয়ে কিওয়ার্ড সার্চ করে ‘টিভিযেদযা’ (TVZVEDZA) নামে একটি রাশিয়ান সরকার অধিকৃত সংবাদমাধ্যমের একটি প্রতিবেদনে (আর্কাইভ) দেখতে পাই, স্বেচ্ছাসেবক নাতালিয়া তার করোনা ভ্যাকসিনের অভিজ্ঞতার কথা বলেছেন। রাশিয়ান ভাষায় লেখা এই প্রতিবেদনটিকে গুগলে ট্রান্সলেট করে জানতে পারি,
স্বেচ্ছাসেবক নাতালিয়া তার করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে টিভিযেদযা-কে বলেছেন, “মোটেও কোনও উত্তেজনা ছিল না। এই সমস্তটির সাথে তাল মিলিয়ে আমি মানসিকভাবে প্রস্তুত ছিলাম। এটি কোনও ক্ষতি করেনি, এটি ভয়ঙ্করও ছিল না।আমরা বুঝতে পেরেছিলাম যে আমাদের জন্য চিকিৎসা বিজ্ঞানের অনেক সহায়তা হবে। আমরা প্রমাণ করব যে সবকিছু নিরাপদ, এবং ভবিষ্যতে এটি অনেকের জীবন বাঁচাতে সহায়তা করবে।“

download (42).png

অন্যদিকে, উইকিপিডিয়া থেকে জানতে পারি রাশিয়ান রাস্ত্রপতি পুতিনের দুটি মেয়ে। মারিয়া পুতিন ও ইয়েকাতেরিনা পুতিন। নাতালিয়া নামে তার কোনও মেয়ে নেই। এছাড়া, পুতিনের মেয়ের ওপর করোনা ভ্যাকসিনের কোনও রিপোর্ট পাওয়া যায়নি।  

download (43).png

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল। পোস্টের ছবিতে যে মেয়েটিকে দেখা যাচ্ছে তার নাম হল নাতালিয়া এবং সে পুতিনের মেয়ে মারিয়া নয়। একজন স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে তার করোনা ভ্যাকসিনের ট্রায়ালে অংশগ্রহন করেছিলেন তিনি। 

Avatar

Title:রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি পুতিনের মেয়ে করোনার ভ্যাকসিন নিলেন, ভুয়ো দাবি করে ছবি ভাইরাল

Fact Check By: Rahul A 

Result: False


Leave a Reply

Your email address will not be published.