দ্য কাশ্মীর ফাইলস: মোদীর ২০১৪ সালের পুরনো সাক্ষাৎকারে ভিডিওকে সম্প্রীতির দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল 

Partly False Political

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ভিডিও শেয়ার করে সেটিকে দ্য কাশ্মীর ফাইলস ছবি দেখার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মতামতের ভিডিও বলে দাবি করা হচ্ছে। ১ মিনিট ৩২ সেকেন্ডের এই ভিডিওতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কাশ্মীরে অসম্প্রীতির পরিবেশের জন্য জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আব্দুল্লাহকে দোষী সাব্যস্ত করছেন। 

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “দ্য কাশ্মীর ফাইলস দেখার পর নরেন্দ্র মোদী কি বললেন শুনুন,, কাশ্মীরি পন্ডিতদের যেভাবে নরসংহার করা হয়েছিল একটি রাজনৈতিক দলের মদতে, লক্ষ্য🎯 একটাই ছিল, তাই কাশ্মীর থেকে প্রথমেই ধারা 370 তুলে দেওয়া হয়েছে।।” 

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের দাবি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। জম্মু কাশ্মীরকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ক্ষোভ প্রকাশের ২০১৪ সালের পুরনো সাক্ষাৎকারের ভিডিওকে সম্প্রতির দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।  

ফেসবুক পোস্ট 

উল্লেখ্য, ১৯৯০ সালে কাশ্মীরে হিন্দু পণ্ডিতদের গনহত্যার পেক্ষাপটে নির্মিত দ্য কাশ্মীর ফাইলস চলতি মাসের ১১ তারিখ মুক্তি পায়। এই ছবির পরিচালক হলেন বিবেক অগ্নিহত্রি। তারপর থেকেই সারাভারত জুড়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে বিশাল প্রভাব ফেলেছে এই ছবি। প্রধানমন্ত্রী মোদি ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ সিনেমার প্রশংসা করেছেন এবং বলেছেন ছবিটিকে বদনাম করার জন্য প্রচার চালানো হচ্ছে। এই ছবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী কি বলেছেন ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন এখানে।  

তথ্য যাচাই 

এই দাবির সত্যতা যাচাই করতে আমরা ভিডিওটিকে ইনভিড টুলের মাধ্যমে কি ফ্রেমে ভেঙ্গে গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলে খুব সহজেই প্রধানমন্ত্রীর এই সাক্ষাৎকারের দীর্ঘ সংস্করণ খুঁজে পাই। 

প্রধানমন্ত্রী ’নরেন্দ্র মোদী’র ইউটিউব চ্যানেলেও এই ভিডিও খুঁজে পাই। ২০১৪ সালের ২৮ এপ্রিল তারিখে এটি আপলোড করা হয়েছে। এই ভিডিওর ২:৩১  থেকে ৩:৫৩ মিনিটের অংশকে ভাইরাল ভিডিওতে ব্যবহার করা হয়েছে। 

এই সুত্র ধরে কিওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে দেখা যায় সংবাদমাধ্যম এবিপি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলেও ভাইরাল এই ভিডিও কেন্দ্রিক একটি উপস্থাপনা ২০১৪ সালের ২৮ এপ্রিল তারিখে আপলোড করা হয়েছে। এই উপস্থাপনার শিরোনামে লেখা রয়েছে, “মোদি ফারুক আবদুল্লাহকে পাল্টা আঘাত করে বলেছেন, কাশ্মীরে ধর্মনিরপেক্ষতা সবচেয়ে বেশি আঘাত করেছে।” 

এই ভিডিও প্রতিবেদনে “সরকার গঠনে ১৭ দিন বাকি” বলে একটি লেখা দেখতে পাওয়া যায়। অর্থাৎ, এটি ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটের পূর্বের সাক্ষাৎকার। 

তথ্য ও প্রমানের সাপেক্ষ্যে স্পষ্ট হয়ে যায়, জম্মু কাশ্মীরকে কেন্দ্র করে প্রধানমন্ত্রীর ক্ষোভ প্রকাশের ২০১৪ সালের পুরনো সাক্ষাৎকারের ভিডিওকে সম্প্রতির দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে। 

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। জম্মু কাশ্মীরকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ক্ষোভ প্রকাশের ২০১৪ সালের পুরনো সাক্ষাৎকারের ভিডিওকে সম্প্রতির দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:দ্য কাশ্মীর ফাইলস: মোদীর ২০১৪ সালের পুরনো সাক্ষাৎকারে ভিডিওকে সম্প্রীতির দাবি করে ভুয়ো পোস্ট ভাইরাল

Fact Check By: Rahul A 

Result: Partly False


Leave a Reply

Your email address will not be published.